১লা এপ্রিল, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
চাঁন মিয়ার ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন পূরন করতে পাশে দাঁড়ালেন সেচ্ছাসেবী শোভন। বরিশাল বাণী পরিবারের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বরিশালের ডাকাত সর্দার বাদল শরীফ ঢাকায় গ্রেফতার ঝালকঠিতে মেলা শেষে পরে আছে বিধ্বস্ত খেলার মাঠ বরগুনায় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে তীব্র ভাঙন পটুয়াখালীতে প্রধানমন্ত্রীর ত্রান তহবিলের ৮ লক্ষ টাকার চেক হস্তান্তর করেন আলী আশ্রাফ বাউফলে প্রথম আলোর সম্পাদকসহ তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের... শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকায় বাংলাদেশ আজ উন্নত সমৃদ্ধ : প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শোক সংবাদ সাংবাদিক বুলবুলের নানী সাহেরা খাতুনের ইন্তেকাল আমতলীতে নদীতে গোসল করতে নেমে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

পাথরঘাটায় দুই ট্রলারের ধাক্কায় বাবার সামনেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ছেলে

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি ::: নোঙর করে রাখা মাছ ধরা ট্রলারে অপর একটি ট্রলারের ধাক্কায় মো. রুবেল মিয়া (২৬) নামে এক জেলের মৃত্যু হয়েছে। বাব আব্দুল কাদের হাওলাদারের সামনেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন ছেলে রুবেল।

শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১ টার দিকে পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নে বিষখালী নদী সংলগ্ন জিনতলা ঘাটে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রুবেল দুই সন্তানের বাবা। তার বাড়ি পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নে।

নিহতের বাবা আব্দুল কাদের বলেন, নদীতে মাছ শিকার শেষে জিনতলা ঘাটে ছেলেকে নিয়ে ট্রলারটি নোঙর করি। আমার ছেলে রুবেল ট্রলার ধোয়ামোছার কাজ করছিল। এ সময় একই গ্রামের মো. চান মিয়ার ট্রলারটি আমাদের ট্রলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে এতে দুই ট্রলারের মাঝে চাপা পড়ে সে। আমার ছেলের চিৎকার শুনে ওকে জড়িয়ে ধরি কিছুক্ষণ পর আর নড়াচড়া করেনি।

কাঁদতে কাঁদতে তিনি বলেন, ট্রলারে চাপা দেয়ার সাথে সাথেই মাত্র একবার চিৎকার শুনেছি। এরপরে অনেক ডাকাডাকি করেও আমার ছেলে আর ডাকে সাড়া দেয়নি।

পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পাথরঘাটা সদর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন বলেন, দুই ট্রলারে মাঝখানে চাপা পড়ে রুবেলের মৃত্যু ঘটে। কোনো পক্ষের অভিযোগ না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

পাথরঘাটা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহ আলম হাওলাদার বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। তবে মৃত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে আপত্তি না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ