১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
আমি বাচতে চাই, দয়া করে আমাকে বাঁচান- শিশু ইউসুফ এবার ভোল পাল্টালেন হাফিজুর রহমান সিদ্দিকী পিরোজপুরে আন্তঃ গরু চোর দলের ৪ সদস্য গ্রেফতার চল্লিশ কাহনিয়া প্রবাসী কল্যাণ সমিতির মানবিক কাজে মুগ্ধ গ্রামবাসী বরিশালে বাস-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ কিশোর নিহত পটুয়াখালীতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকীতে এসটিএস হাসপাতালের ২ দিন ব্যাপী ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প করোনায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১ হাজার ৯০৭ ভোলায় মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি, পূজা পরিষদের সভাপতি আটক ইন্দুরকানীতে নয় বছরেও সেতুতে নেই ল্যাম্পপোষ্ট, পথচারীদের ভোগান্তি

পাথরঘাটায় ব্যবসায়ীর ধর্ষণে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী শিশু ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি ::: বরগুনার পাথরঘাটার রূহিতা গ্রামের ১৩ বছরের এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী শিশুকে ধর্ষণের পর ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে। এ ঘটনায় পাথরঘাটা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। একই গ্রামের শুঁটকি ব্যবসায়ী খলিলের (৪৫) বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠায় তার বিরুদ্ধে ওই মামলা করা হয়। এ ঘটনায় ওই শিশুর মা বাদী হয়ে শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাতে পাথরঘাটা থানায় মামলা করেছেন।

অভিযুক্ত খলিল বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নের রূহিতা গ্রামের ছালাম ওরফে মিষ্টি ছালামের ছেলে।

ওই শিশুর মা বলেন, গত কয়েকদিনে আমার মেয়েটির শরীরের পরিবর্তন দেখে তার কাছে এ অবস্থার কথা জানতে চাই। তখন এ অবস্থার কথা সব জানায় এবং মেয়ের কাছ থেকে জানতে পারি। তবে অন্তঃসত্ত্বার ঘটনায় খলিল দায়ী বলে আমার মেয়ে জানায়। পরবর্তীতে স্থানীয় বাসিন্দা ও সুশীলন নামে একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার লোকজনের পরামর্শে ডাক্তার দেখাই এ সময় জানতে পারি আমার মেয়ে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

শিশুর মা আরও বলেন, সম্ভাব্য চলতি বছরের ৫ মার্চ রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঘরের পাশে একটি ছাগল শব্দ করলে ঘর থেকে নামে ১৩ বছরের ওই মেয়েটি। এ সময় ওই মেয়েটিকে জোর করে মুখ বেঁধে ঘরের পাশে একটি পরিত্যক্ত (শুকনো) ডোবায় নিয়ে যায়। এ সময় ওই ডোবায় নিয়ে খলিল মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে শুঁটকি ব্যবসায়ী খলিল ওই শিশুকে শাসিয়ে বলে এ কথা যদি কাউকে বলো তবে তোকে ও তোর মাকে খুন করে ফেলবো।

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা সুশীলনের পাথরঘাটা উপজেলা ব্যবস্থাপক ইসমাইল হোসেন ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি মুনিরা ইয়াসমিন খুশি বলেন, ঘটনা জানতে পেরে আমরা মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে কথা বলি। এ সময় মেয়ের পরিবারের এক সদস্যকে নিয়ে আলট্রাসনো করিয়েছেন। ওই আলট্রাসনো রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যায়, মেয়েটি ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা। তার সন্তান প্রসবের সম্ভাব্য তারিখ ১২ ডিসেম্বর।

অভিযোগ প্রসঙ্গে খলিলের মোবাইলে ফোন করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল বাশার বলেন, ভিকটিমের মা বাদী হয়ে পাথরঘাটা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন। আসামি গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা করছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ