২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পায়ের তলায় তেল মালিশ! কেন করে জানেন কি ?

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

আমাদের শরীর ও মন শিথিল করার জন্য একটি সহজ, সস্তা ও কার্যকর পদ্ধতি হচ্ছে পায়ের তলায় তেল মালিশ। পায়ের মূল পয়েন্টের ওপর চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে এটি করা হয়। এই মালিশ করার ফলে স্ট্রেস, শরীরের কোষ পুষ্টি এবং অক্সিজেনের জন্য গুরুত্বপূর্ণ রক্ত প্রবাহ বাধা দেয়। রক্তসংবহন এছাড়াও শরীরের বাইরে বিষক্রিয়াগত মাথা ব্যথা, বর্জ্য সরিয়ে ফেলতে, শরীরজুড়ে নির্বিঘ্ন রক্ত প্রবাহে এবং চাপ কমাতে পায়ের তলায় মালিশ সাহায্য করে।

টিপস:

প্রথমে কুসুম গরম পানি ধুয়ে নিন পা দুটি। ভালো করে মুছে ও শুকিয়ে তেল দিয়ে মালিশ করুন। পায়ের তলা ভালো করে মালিশ করতে হবে। তেল যতক্ষণ না শুকিয়ে যায় ততক্ষণ করুন।

কী তেল ব্যবহার করবেন?

পায়ের মালিশ করতে চাইলে অবশ্যই ব্যবহার করুন তেল। এক্ষেত্রে সব থেকে ভালো হয়, সরিষার তেল ব্যবহার করতে পারলে। এছাড়া চাইলে খাঁটি দেশি ঘি ব্যবহার করা যায়।

উপকারিতা

অনিদ্রা দূর করে ঘুমোতে সাহায্য করে

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, পায়ের তলায় মালিশ করতে পারলে শরীর ভালো থাকে। এমনকি ঘুম ভালো হয়। এক্ষেত্রে ঘুমাতে যাওয়ার আগে অবশ্যই পায়ের তলা মালিশ করুন। দেখবেন দ্রুত ঘুম এসেছে। মন রয়েছে ভালো। তাই অনিদ্রা থাকলে এই কৌশল ব্যবহার করে দেখেতেই পারেন। তবেই ভালো থাকবেন।

দুশ্চিন্তা দূর করে: 

এখনকার দিনে দুশ্চিন্তা দূর করা হলো সব থেকে বড় সমস্যার। এই দ্রুতগতিতে বয়ে চলা জীবনে এ ঘটনা ঘটা খুবই স্বাভাবিক। তবে গবেষণায় দেখা গেছে, পায়ের তলায় মালিশ করলেও দুশ্চিন্তা অনেকটাই দূরে থাকে।

অস্থিসন্ধির ব্যথা দূর করে:

অস্থিসন্ধির ব্যথায় আক্রান্তের সংখ্যা এখন প্রতিদিনই বাড়ছে। এমন অবস্থায় অস্থিসন্ধির ব্যথা কমাতে চাইলেও আপনাকে অবশ্যই করতে হবে পায়ের তলায় মালিশ। এক্ষেত্রে ব্যথা বাড়লে এই মালিশ করে দেখুন।

রক্তসঞ্চালন বাড়ে:

শরীরে রক্ত সঞ্চালন বাড়ার কাজে যেকোনো ম্যাসাজ কার্যকরী হতে পারে। তবে এক্ষেত্রে গোটা শরীরে রক্ত সঞ্চালন ভালো করতে চাইলে আপনি অবশ্যই পায়ের তলায় তেল মালিশ করুন। দেখবেন ভালো আছেন।

পিরিয়ডের সমস্যায়:

পিরিয়ডসের সময় ব্যথা দূর করতে চাইলে আপনার হাতিয়ার হতে পারে পায়ের তলার মালিশ। আর যারা অনিয়মিত পিরিয়ডের সমস্যায় ভোগেন, তারাও অবশ্যই মালিশ করুন। দেখবেন সমস্যা কমে গেছে।

সর্বশেষ