২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

পিরোজপুরে যুবলীগ নেতাকে হত্যাচেষ্টা : দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা

পিরোজপুর প্রতিনিধি :: পিরোজপুর পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহাবুব শুভকে গুলি করে হত্যাচেষ্টা ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক বারী তালুকদার জয়েনের বাসায় সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে পিরোজপুর সদর থানায় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহাবুব শুভ মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় আটজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো আট-নয়জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলায় পৌরসভার কুমারখালী এলাকার সাহা সিকদারের ছেলে সোহাগ সিকদার (৩০), নামাজপুর এলাকার ফরিদ শেখের ছেলে হাসিবুর রহমান মিল্লাত (২৫), শিকারপুর এলাকার সলেমান ব্যাপারীর ছেলে জাকির হোসেন লাবু (২৮), সিআই পাড়ার জুয়েল সরদারের ছেলে সোহান সরদার (২৮) ও ঝাটকাঠী এলাকার সিদ্দিকুর রহমান খানের ছেলে সজীব খানের নাম উল্লেখ করা হয়।

অপর দিকে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক বারী তালুকদার জয়েনের বাবা ও জেলা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা নকীব, বাড়িতে হামলা ও ডাকাতি চেষ্টার অভিযোগে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। এ অভিযোগেও উল্লেখিত নামীয় আসামিসহ অজ্ঞাত ৮-১০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন ৩ মে রাত ১১টার দিকে শহরের উকিলপাড়াস্থ শুভর নিজ বাসার সামনে কয়েকটি মোটরসাইকেল এসে মোটরসাইকেল থেকে পিরোজপুর শহরের চিহ্নিত সন্ত্রাসী সোহাগ শিকদার তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে সিলভার কালারের একটি পিস্তল বের করে গুলি করে। এ সময় তিনি পাশে রাস্তায় লুটিয়ে পড়লে তার শরীরে গুলি লাগেনি। তখন তার সাথে থাকা নেতাকর্মীরা তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে অন্য মোটরসাইকেলে থাকা সন্ত্রাসীরা তাদের দিকে দু’টি বোমা নিক্ষেপ করে পলিয়ে যায়।

পিরোজপুর জেলা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা নকীব বলেন, আমার বাড়িতে হামলা ও ডাকাতির চেষ্টার উদ্দেশ্যে আসামিরা এ হামলা করে। পরে পুলিশ এলে আমার বাসার সিসি ক্যামেরার ভিডিও তাদের দেখালে আসামিদের সম্পর্কে তাদের অবগত করা হয়। এই কর্মকাণ্ড যদি অব্যহত থাকে তাহলে আমি ও আমার পরিবারের সদস্যদের জীবনের শঙ্কা করছি।

এ ঘটনায় নিন্দা ও প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে বুধবার শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

পিরোজপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুরুল ইসলাম বাদল জানান, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহাবুব শুভ দণ্ডবিধি অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে নামীয় আটজনসহ অজ্ঞাত আট-নয়জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এ ছাড়া জেলা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা নকীবের একটি অভিযোগ পেয়েছি। তা তদন্ত করে শিগগিরই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ