১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

প্রাথমিকে ৫০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের দাবি

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল এ মাসেই প্রকাশ হতে পারে। এতে ৩২ হাজার ৫৭৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে বলে সর্বশেষ জানা গেছে। যদিও এর আগে সংশ্লিষ্টরা বলেছিলেন, ৫০ হাজারের বেশি শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে।

তাই অন্তত ৫০ হাজার শিক্ষক নিয়োগের দাবি জানিয়েছেন প্রার্থীরা। আজ রবিবার সকালে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের সামনে জড়ো হয়ে তারা এ দাবি জানান।

প্রার্থীরা বলেছেন, ‘কতজন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে, তা নিয়ে একেক সময় একেক কথা বলছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের কর্মকর্তারা। সব লিখিত পরীক্ষা উত্তীর্ণদের মধ্যে থেকে ১:৩ অনুপাতে শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়। সেই ধারাবাহিকতায় ভাইভায় অংশ নেওয়া দেড় লাখের বেশি প্রার্থীর মধ্যে অন্তত ৫০ হাজারকে নিয়োগ দেওয়া উচিত।’

তারা বলেন, ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩২ হাজার ৫৭৭ জন শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হলেও পরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ৪৫ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানায়। এরপর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের পক্ষ থেকে ৫৮ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছিলো। কিন্তু এখন কর্মকর্তারা বলছেন ৩২ হাজার ৫৭৭ জন শিক্ষকই নিয়োগ দেওয়া হবে। আমরা ১ লাখ ৫১ হাজারের বেশি প্রার্থী লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ভাইভায় অংশ নিয়েছিলেন। আগে ভাইভায় অংশ নেওয়া প্রার্থীদের একতৃতীয়াংশ শিক্ষক পদে নিয়োগ পেতেন। কিন্তু এখন তারা দেড় লাখের ভাইভা নিয়ে বলছেন সাড়ে ৩২ হাজার নিয়োগ হবে। আমরা চাই ভাইভায় অংশ নেওয়া প্রার্থীদের এক তৃতীয়াংশ বা ৫০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হোক।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ