১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বরগুনায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, জনতার হাতে ধরা ধর্ষক

বরগুনা প্রতিনিধি :: বরগুনা সদর উপজেলার ৫নং আয়লা পাতাকাটা ইউনিয়নের বৈকালিন বাজার নামক স্থানে নানা বাড়িতে বেড়াতে এসে ১০ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে রাব্বি নামে এক কিশোরের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষক রাব্বিকে আটক করেছে বরগুনা থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত রাব্বি একই ইউনিয়নের পাকুগাছিয়া গ্রামের আ. হক মিয়ার এর ছেলে।

ভুক্তভোগী কিশোরী বলেন, অভিযুক্ত রাব্বির সাথে তার (ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী কিশোরীর) দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বৃহস্পতিবার (২৬ আগষ্ট) ভুক্তভোগী কিশোরী বরগুনা সদর উপজেলার ৫নং আয়লা পাতাকাটা ইউনিয়নের বৈকালিন বাজারস্থ তার নানা বাড়িতে বেড়াতে আসে। তার (ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী কিশোরী) বেড়াতে আসার খবর জানতে পেরে রাত ৩টার দিকে ফোনে করে বাহিরে আসতে বলে অভিযুক্ত রাব্বি। ভুক্তভোগী ঐ স্কুলছাত্রী অভিযুক্ত রাব্বির কথায় সরল বিশ্বাসে তার ( ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী) নানার ঘরের বাহিরে এসে কথা বলে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে তার সেলোয়ার পড়ার সময় অভিযুক্ত রাব্বি ভুক্তভোগী ঐ কিশোরীকে তার সেলোয়ার পড়তে না দিয়ে জোড়পূর্বক ২ বার ধর্ষণ করে।

ভুক্তভোগী কিশোরীর নিকট আত্মীয় ও প্রতক্ষ্যদর্শী কয়েকজন এলাকাবাসী বলেন, রাত ৩টার একটি মোটরসাইকেল ভুক্তভোগী ঐ কিশোরীর নানার বাড়ির সামনে থামলে আমাদের সন্দেহ হলে আমরা সামনে এগিয়ে গেলে ঐ কিশোরীকে ধর্ষণের সময় আমরা অভিযুক্ত রাব্বিকে হাতেনাতে আটক করে ৯৯৯ ফোন করে পুলিশে খবর দেই। সকালে পুলিশ এসে অভিযুক্ত রাব্বিকে আটক করে বরগুনা থানায় নিয়ে যায়।

বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. তারিকুল ইসলাম জানান, ৯৯৯ এর ফোন পেয়ে আমাদের পুলিশের একটি চৌকলশ টিম এসআই দিবাকরের নেতৃত্বে ঘটনাস্থল বৈকালিন বাজারে পাঠাই, ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্ত রাব্বিকে আটক করা হয়েছে। আমার উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ