৯ই ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

বরিশালের স্বাস্থ্য কর্মকর্তার দুর্নীতি তদন্ত করছেন পটুয়াখালীর সিভিল সার্জন

বরিশাল বাণী: বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.এস.এম রমিজ আহমেদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্ত শুরু হয়েছে। করোনাকালীন সম্ভাব্য রোগীদের নমুনা বরিশালে প্রেরনে ভুয়া যাতায়াত বিল দেখিয়ে বিপুল পরিমান টাকা আত্মসাতের অভিযোগে শনিবার থেকে এ তদন্ত শুরু হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে পটুয়াখালী জেলা সিভিল সার্জন ডা. জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে গঠিত ৩ সদস্যের কমিটি অভিযোগের তদন্ত করছেন।

ডা. জাহাঙ্গীর আলম শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় জানান, তিনি শনিবার দিনভর মেহেন্দিগঞ্জে অবস্থান করে অভিযোগের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো যাচাই-বাছাই ও স্বাক্ষ্য গ্রহন করেছেন। নিরপেক্ষ অবস্থান বজায় রেখে তদন্ত প্রতিবেদন দেবেন বলে আশ্বস্ত করেন।

জানা গেছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় গত ৫ অক্টোবর ডা. জাহাঙ্গীর আলমকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। আগামী ১৫ কর্মদিবসের মধ্যে তাদের তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহজনক রোগীর নমুনা সংগ্রহের পর বরিশাল নগরীতে প্রেরনের জন্য স্পীডবোট ভাড়া বাবদ প্রতিটি নমুনার বিপরীতে ৫ হাজার টাকা বিল করার অভিযোগ রয়েছে মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এস.এম রমিজ আহমেদের বিরুদ্ধে। এছাড়া মেহেন্দিগঞ্জ পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মশিউর রহমান নাদিম ডা. রমিজের অনিয়ম-দুর্নীতি তুলে ধরে স্বাস্থ্য মন্ত্রাণালয়ে লিখিত অভিযোগ দেন।

জানা গেছে, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় গত ১৮ অক্টোবর ডা. জাহাঙ্গীর আলমকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। আগামী ১৫ কর্মদিবসের মধ্যে তাদের তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

সূত্র: আলোকিত বাংলাদেশ

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ