২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
না ফেরার দেশে বরিশাল প্রেসক্লাব সভাপতি কাজি নাসির উদ্দিন বাবুল স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে, স্মার্ট নাগরিক তৈরি করতে হবে- চীফ হুইপ নূর-ই-আলম লিটন চৌধুরী নিরাপদ, স্বাস্থ্যসম্মত ও রপ্তানিযোগ্য শুটকি উৎপাদনে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ পবিপ্রবিতে ক্লাস-পরীক্ষা চালু করতে প্রশাসনের সাথে শিক্ষার্থীদের আলোচনা উজিরপুরে ৫ কেজি গাজা সহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক। গলাচিপায় জাতীয় ভোটার দিবস ২০২৪ উপলক্ষে র‍্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আইজিপি পদক পেলেন রাঙ্গাবালী থানার ওসি পটুয়াখালী পৌর নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী আজাদের টাকার হিসাব শুনে চক্ষু চড়কগাছ! গৌরনদীতে অগ্নিকাণ্ডে পাঁচটি বসতঘর ভস্মীভূত উজিরপুরে ৫ কেজি গাজাসহ দুই মাদক কারবারি গ্রেফতার

বরিশালে করোনার ভয়ে শিশু পুত্রের পায়ে শিকল বেঁধে রেখলো বাবা!

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

শামীম আহমেদ :: করোনা সংক্রমনের ঝুঁকির মধ্যে বন্ধুদের সাথে অবাধে মেলামেশা ও ঘোরাফেরা করায় মাদরাসা পড়ুয়া আট বছরের এক শিশুর পায়ে শিকল বেঁধে রেখেছে তার বাবা। ঘটনাটি বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের রাংতা গ্রামের।

জানা গেছে, ওই গ্রামের আব্দুর রশিদ হাওলাদারের রাজিহার-গৌরনদী সড়কের রাংতা ব্রীজের পাশে একটি চায়ের দোকান রয়েছে। মহামারী করোনার কারনে গত কয়েক মাস থেকে তার (রশিদ) পুত্র রাব্বী হাওলাদারের মাদরাসা বন্ধ। বৃহস্পতিবার সকালে রাব্বি বাড়ি থেকে বের হয়ে বন্ধুদের সাথে ঘুরতে বেরিয়ে রাতে বাড়িতে ফেরে। করোনার মধ্যে সারাদিন বাহিরে থাকায় রাব্বির বাবা ও মা শেফালী বেগম শুক্রবার সকাল থেকে রাব্বির পায়ে শিকল বেঁধে তালাবদ্ধ করে বাবার দোকানে বসিয়ে রেখেছে।

শুক্রবার দুপুরে শিশু রাব্বির বাবা রশিদ হাওলাদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, প্রায়ই রাব্বি বাড়িতে না থেকে গ্রামের বন্ধুদের সাথে অবাধে মেলামেশা করে। এতে করে পরিবারের সদস্যদের মধ্যেও করোনা ঝুঁকি বেরে গেছে। অনেক বোঝানোর পরেও রাব্বি তাদের কথায় কোন কর্নপাত করছেনা। তিনি আরও বলেন, আমি না ওর (রাব্বি) মা শিকল দিয়ে বেঁধেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা সুশান্ত বালা বলেন, মহামারী করোনার জন্য যেকোন বাবা-মা তাদের সন্তানের নিরাপত্তার জন্য সাবধানতা অবলম্বন করতেই পারে। তবে শিশু অধিকার আইনে কোন শিশুকে এভাবে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা অপরাধ। এ ধরনের কাজ করা কোন বাবা ও মায়ের উচিৎ নয়। ঘটনাটি দুঃখজনক বলেও তিনি উলে­খ করেন।

সর্বশেষ