২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বরিশালে গৃহবধূকে নির্যাতন,শেবাচিম ভর্তি :

নিজস্ব প্রতিবেদক: বরিশালের বিমানবন্দর থানায় যৌতুকের টাকার জন্য শ্বশুরবাড়ির লোকজন গৃহবধূ ফারজানা বেগমের(২০)এর উপর নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । গত শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় ওই থানার পূর্ব দেহেরগতি গ্রামে বেপারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত গৃহবধূ ওই গ্রামের গোলাম রাব্বি বেপারীর স্ত্রী। বর্তমানে তিনি শেবাচিমে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

আহত সূত্রে জানা যায়, পাঁচ বছর পূর্বে ওই গ্রামের বাসিন্দা আবুল কালাম বেপারীর ছেলে গোলাম রাব্বির সাথে বিবাহ হয় ফারজানা বেগমের। বিবাহর পরে দুই বছর শান্তিতে বসবাস করে গৃহবধূ ফারজানা। কিন্তু তিন বছর পূর্বে তার ঘরে ফুটফুটে এক কন্যা সন্তান খাদিজার জন্ম হয়। এরপর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিভিন্ন সময়ে ফারজানা বেগমের উপরে যৌতুকের টাকার জন্য চাপ দিতে থাকে। তাদের চাহিদা দিন দিন বাড়তে থাকে। কয়েকদিন পূর্বেও ফারজানা তার ছোট বোনের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা এনে তার স্বামীর কাছে দেয়।

ঘটনার দিন গৃহবধূকে পুনরায় যৌতুকের টাকা কথা বললে অপরাগতা স্বীকার করে গৃহবধূ ফারজানা। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ফারজানার শশুর আবুল কালাম বেপারি, স্বামী গোলাম রাব্বি বেপারি,শাশুড়ি জাকিয়া বেগম মিলে গৃহবধূ ফারজানা উপরে নির্যাতন চালায়। পরে স্থানীয়রা আহত গৃহবধূ ফারজানাকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে গৃহবধূ ফারজানা আরো বলেন, আমার মেয়ে খাদিজার মুখের দিকে তাকিয়ে আমি শ্বশুর,শাশুড়ি ও স্বামীর অনেক নির্যাতন সহ্য করেছি। তারা আমাকে যৌতুকের টাকার জন্য বিভিন্ন সময় শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে। আমি আর তাদের নির্যাতন সইতে করতে পারছিনা।

এ নিয়ে মামলা দায়ের করা হবে বলেও তিনি আরো জানান।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ