১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বরিশালে জোরপূর্বক ধর্ষণ ও রক্তক্ষরণে মৃত্যু পথযাত্রী ৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুলছাত্রী

ইয়ামিন মোল্লা: বরিশালের হিজলা’র মেমানিয়া ইউনিয়নে’র ৬নং ওয়ার্ড বাসিন্দা এক কিশোরী ৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুলছাত্রী (১২) কে স্কুলে যাবার পথে একা পেয়ে ধরে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করেছে পার্শ্ববর্তী এলাকার করিম মোল্লার ছেলে মোটরসাইকেল ড্রাইভার আতাউল্লাহ । গতকাল ২০ সেপ্টেম্বর বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে এই ঘটনা ঘটে। এতে মেয়েটি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে চিকিৎসার এলাকা বাসী রক্তাক্ত অবস্থায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে তার মা মোর্শেদাকে সাথেনিয়ে হিজলা সাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ভিকটিমের মা মোর্শেদা বেগম বাদি হয়ে ধর্ষক আতাউল্লা মোল্লা (২০) কে আসামী করে হিজলা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন যার নং০৫,তাং ২১-০৯-২১ইং নারী ও সিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সেশোধনী ২০০৩’র ৯(১) ।

হিজলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অসিম কুমার সিকদর জানান, আসামী এখনো গ্রেফতার হয়নি তবে গ্রেপ্তারের সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত আছে।

স্থানীয় সুত্রে জানাযায় একটি প্রভাবশালী মহল ঘটনাটি ধামাচাপাদিতে ব্যাস্ত। মেমানিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ নাসির মাষ্টারের সাথে কথা বল্লে তিনি আসামীর কঠিন শাস্তির দাবি করেন।

প্রধান শিক্ষক আবদুল মোতালেব আসামীর দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবিদার।

সাস্থ্যকেন্দ্র’র কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ শাহারাজ হায়াত ভিকটিমের অবস্থার অবনতি(ব্লিডিং বন্ধ না হওয়ায়) ২১ সেপ্টেম্বর ভোরে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেলে রেফার্ড করেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ