১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
প্রখ্যাত সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী আর নেই কর্মস্থলে সিনিয়র-জুনিয়র সম্পর্ক বরিশালে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকদের ঈদ পুনর্মিলনী ও মধুমাস উদযাপন কাউখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের নতুন চেয়ারম্যান প্রফেসর ডা. কাজী শহীদুল আলম ভোলায় পুলিশের সহায়তায় বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ে খুঁজে পেলো নিরাপদ আশ্রয়স্থল পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য হলেন অধ্যাপক ডাঃ মনিরুজ্জামান শাহীন নির্মিত হলো জিনিয়া জিনি'র মিউজিক ভিডিও 'ও সাথী' ঢাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী ২টি হত্যা মামলায় মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামী বিপ্লব উজিরপুরে গ্রেফতার

বরিশাল নগরীতে স্কুলশিক্ষিকাসহ ৩ জনকে কুপিয়ে-পিটিয়ে আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশাল নগরীতে স্কুল শিক্ষিকাসহ পরিবারের ৩ জনকে হত্যার চেষ্টায় দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে-পিটিয়ে রক্তাক্ত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮ টায় এয়ারপোর্ট থানাধীন কাশীপুরের ইছাকাঠী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, ইছাকাঠী এলাকার ডেনিস তাপস রায় এবং ডেনিসের স্ত্রী ও বরিশাল অক্সফোর্ড মিশন হাই স্কুল এর আইসিটি শিক্ষক দিপালী বাইন ও ছেলে ডেরিল অদ্রি রায়।

এদের মধ্যে গুরুতর দিপালী ও ডেরিলকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এবং ডেনিস প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়।

আহত দিপালী জানান- দীর্ঘদিন ধরে ডেনিস তাপস রায় পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া ওয়ারিশ বণ্টন সম্পত্তি নিয়ে ডেনিসের ছোট ভাই এডইন বিপ্লব রায়ের সাথে বিরোধ চলে আসছে। এডইন বিপ্লব ও তার পরিবারের সহযোগীরা বড় ভাই ডেনিসের সম্পত্তি জবর দখল করার চেষ্টা চালায়। প্রায় সময় তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ডেনিস ও তার পরিবারকে বিভিন্ন ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছে এডইন বিপ্লব।

ডেনিসের স্ত্রী দিপালী অক্সফোর্ড মিশন স্কুলে শিক্ষকতার কারণে পরিবার নিয়ে অক্সফোর্ড মিশন স্কুলের কোয়ার্টারে থাকেন। এ সুযোগে কাশীপুরের ইছাকাটিতে এডইন বিপ্লব ও তার সহযোগীরা পরিকল্পিতভাবে ডেনিসের সম্পত্তি আত্মসাতের চেষ্টা করে।

ঘটনার দিন শুক্রবার সকালে ডেনিস ও তার স্ত্রী দিপালী, ছেলে ডেরিল কাঠমিস্ত্রি নিয়ে ওই সম্পত্তিতে ঘর তুলতে গেলে এডইন বিপ্লব ও তার স্ত্রী অনামিরা এবং বিপ্লবের বোন নীলিমা রায় নিলুসহ একদল সন্ত্রাসী পরিকল্পিতভাবে ডেনিসের কাজ বন্ধ করে দেয় ও ওই জমি দখল নেওয়ার চেষ্টা চালায়।

এসময় ডেনিস ও তার পরিবারের সহযোগীরা প্রতিবাদ করলেন বিপ্লব, অনামিরা, নিলিমাসহ ১৫ থেকে ২০জন সহযোগী দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ডেনিসের ওপর হামলা চালায়।

ডেনিসকে বাঁচাতে স্ত্রী দিপালী ও ছেলে ডেরিল আসলে তাদেরকে কুপিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত করেন বিপ্লবসহ অন্যান্য সহযোগীরা।

ডেনিস জানান, ঘটনার সময় বিপ্লব ও তার সহযোগীরা আমাদের ঘর তোলার কাজ বন্ধ করে দেয়। এসময় বিপ্লব তার বোন নীলিমাকে আলেকান্দা কলোনী থেকে ডেকে আনে। নীলিমা তার লোকজনসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে ডেনিসের পরিবারের ওপরে হামলা শুরু করে। সেসময় নীলিমার হাত থেকে থানা পুলিশ একটি চাইনিজ কুড়াল উদ্ধার করেন।

নীলিমা রায় দীর্ঘদিন পূর্বে তার ওয়ারিশ সূত্রে পাওয়া সম্পত্তি হেবা দলিলের মাধ্যমে বিপ্লবের দেয়।

তা সত্ত্বেও নীলিমা তার ছোটভাই বিপ্লবের পক্ষ নিয়ে বড় ভাই ডেনিসসহ অন্যান্য ভাইদেরকে অপদস্ত করে আসছে। এবং বিভিন্ন সময় হত্যার হুমকিও দেয়।

নীলিমার ছেলে অনিক একজন নেশাখোর মাদকসেবী। প্রায় সময় নেশা করে মাতলামি শরু করে দেয়, অভিযোগ করেন ডেনিস।

ডেনিস আরও জানান, সম্পত্তির লোভে প্রায় সময় বিপ্লব ও তার সহযোগীরা বিভিন্ন জুলুম অত্যাচার নিপিড়ন চালিয়ে আসছে। বিপ্লব আইনের নিয়ম-কানুন তোয়াক্কা করে না। এমনকি সালিশ বিচার মানছে না। ডেনিসের জমি দখল করার লোভে বিপ্লব তার স্ত্রীকে ব্যবহার করে বিভিন্ন ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দিয়ে ফাঁসানো চেষ্টা চালায়।

এদিকে ঘটনা ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নাটকীয় কায়দায় বিপ্লবের বোন নীলিমা শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি হয়।

এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে আহতের স্বজনরা জানান।

এ ঘটনায় এয়ারপোর্ট থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আখতারুজ্জামান জানান, জমি নিয়ে ভাইয়ের মধ্যে বিরোধ ও মারপিট হয়। আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করি। অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ