৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বরিশাল সাগরদীতে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

বরিশাল বাণীঃ

বরিশাল নগরীর সাগরদী এলাকায় প্রেমের সম্পর্কের জের ধরে রাবেয়া আক্তার নামে এক স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
বুধবার বিকেল চারটার দিকে ধান গবেষণা রোডের জিয়ানগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনাস্থল থেকে বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করেন।
আত্মহত্যাকারী রাবেয়া বরগুনা জেলার ৭ নং সরিষামুড়ি ইউনিয়নের সেন্টু মোল্লার মেয়ে এবং জিয়ানগর বাবুল মিয়ার ভাড়াটিয়া ও বরিশাল এ আর এস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী।
নিহতের বোন মালা আক্তার জানান, নিহত রাবেয়া মালার মামাতো বোন। মালা তার পরিবার নিয়ে বরিশালে বসবাস করেন। গত সাত মাস পূর্বে জিয়ানগর বাবুল মিয়ার বাসা ভাড়া নেয়া হয়। মালার পরিবারের সাথে তার মামাতো বোন রাবেয়া এখানে থেকে পড়াশোনা করেন।
গত তিন চার মাস ধরে বাড়িওয়ালার ছেলে রাব্বি প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে মালার বোন রাবেয়াকে উত্ত্যক্ত করে আসছে।
বিষয়টি নিয়ে মালা ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে একাধিকবার নিষেধ করা হলেও বাড়িওয়ালার ছেলে রাব্বি বিভিন্ন ভয়-ভীতি দেখিয়ে রাবেয়া কে প্রেমের ফাঁদে ফেলে।
সর্বশেষ বিষয়টি মালার পরিবারের পক্ষ থেকে বাড়িওয়ালা বাবুল মিয়াকে জানানো হয়।
ঘটনার দিন বুধবার দুপুর বারোটার দিকে বাবুল মিয়া ও তার সহযোগীরা রাবেয়াকে প্রেমের সম্পর্ক তুলে ধরে মানসিক টর্চার করে।
রাবেয়া বাড়িওয়ালা বাবুর মিয়ের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বিকেলে ঘরের দরজা বন্ধ করে ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়।
মালা আরো জানান, বাড়িওয়ালা বাবুল মিয়া আমার মামাতো বোন রাবেয়কে সন্তানের মতো করে তাকে সুন্দর করে বুঝাতে পারতো।
অথচ সেভাবে তাকে না বুঝিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ সহ মানসিক নির্যাতন করেন। বাড়িওয়ালার এমন নির্যাতনের ফলে আমার বোনের প্রাণ গেল।
আমার বোনের মৃত্যুর জন্য বাড়িওয়ালা বাবুল মিয়াকে আমরা দায়ী করবো।
এ ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের হয়েছে। তবে মালার পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলার দায়েরের জন্য প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ