শুক্রবার, ১৪ অগাস্ট ২০২০, ০৫:৩২ পূর্বাহ্ন

বাউফলে আ.লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, যুবলীগ সভাপতিসহ আহত ১০

বাউফলে আ.লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, যুবলীগ সভাপতিসহ আহত ১০

Print Friendly, PDF & Email

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কেশবপুর কলেজে আওয়ামী লীগের প্রস্তুতি সভায় হামলায় যুবলীগ সভাপতিসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। সংঘর্ষে গুরুতর জখম বশিরকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করছে। এছাড়া আহতদের মধ্যে ইব্রাহিম (২০), মিন্টু (২৩), সেন্টু (১৯) ও ফয়সালকে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে । এ ঘটনায় কেশবপুর বাজারে ফের হামলার আশঙ্কায় আতঙ্ক বিরাজ করছে ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের একটি অংশ ইউনিয়ন সভাপতি ও কেশবপুর কলেজের অধ্যক্ষ সালাউদ্দিন পিকুর নেতৃত্বে দলীয় কার্যক্রম চালিয়ে আসছে।
অন্যদিকে, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন লাভলুর সঙ্গে দলীয় নেতাকর্মীদের মতবিরোধ থাকায় অনেকদিন ধরেই স্নায়ুযুদ্ধ চলে আসছে। শুক্রবার দুপুরে ঈদে ইউনিয়নের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে সালাউদ্দিন পিকুর নেতৃত্বে একটি অংশ প্রস্তুতি সভার আয়োজন করে কেশবপুর কলেজে। এ সভার বিষয়ে মহিউদ্দিন লাভলুকে জানানো হয়নি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে লাভলুর সমর্থক সাবেক যুবদল নেতা রফিকের নেতৃত্বে ১০ থেকে ১৫ জনের একটি দল লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায়। এসময় সালাউদ্দিন পিকুর নেতাকর্মীরা তাদের বাধা দিলে তাদের পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করা হয়। ভাঙচুর করা হয় কলেজের জানলা-দরজা।

পরে আহতদের উদ্ধার করে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। এদের মধ্যে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি বশির হাওলাদারের অবস্থা গুরুতর হলে তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে মহিউদ্দিন লাভলু এ প্রতিবেদককে বলেন, রফিককে সকালে সালাউদ্দিন পিকুর ছোট ভাই সুজনের নেতৃত্বে মারধর করা হলে রফিকের আত্মীয়-স্বজন পাল্টা হামলা চালায় । আমি এখন ঢাকায় অবস্থান করছি।

এ বিষয়ে সালাউদ্দিন পিকু এ প্রতিবেদককে বলেন, সাবেক চিফ হুইপের নির্দেশে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে প্রস্তুতি সভা চলছিল ইউনিয়ন নেতাকর্মীদের নিয়ে। এসময় লাভলুর সমর্থক রফিকের নেতৃত্বে ১০-১৫ জন লাঠিসোটা নিয়ে হামলা করলে ১০ নেতাকর্মী আহত হয়।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মামুন মুঠোফোনে বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। মামলা হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

 124 total views,  2 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

add



© All rights reserved © 2014 barisalbani