২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

বাউফলে নোমান বাহিনীর হামলায় নারীসহ আহত-৪, আটক-১

পটুয়াখালী প্রতি‌নি‌ধিঃ

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের মাদবপুর গ্রামে রফিক বিশ্বাসের ছে‌লে মোঃ নোমান বিশ্বাসের বিরুদ্ধে জোরপূর্বকভাবে একই গ্রামের মৃতঃ চিত্ত রঞ্জন ন্যায়পতির ছে‌লে চন্দ্র শেখর ন্যায়পতির মা‌লিকানাধীন জমি দখল করার অভিযোগ উ‌ঠে‌ছে।
জমি দখল করে ভেকু মেশিন দিয়ে মাটি কেটে নেওয়ার সময় চন্দ্র শেখর ন্যায়পতি বাধা দিলে তার এবং তার পরিবারে উপর অতর্কিত হামলা চালান মোঃ নোমান বিশ্বাস এবং তার দস্যু বাহিনীরা। এ‌তে অন্তত ৪জন আহত হবার খবর পাওয়া গে‌ছে।

ঘটনাটি ঘটে গতকাল বিকালে আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের মাদবপুর গ্রামের গোলদার বাড়ীতে। প্রত্যর্ক্ষদশী এবং অভিযোগকারীর কাছ থেকে জানা গে‌ছে, জোরপূর্বকভাবে ভেকু মেশিন দিয়ে মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিলেন মোঃ নোমান বিশ্বাস এবং তার দস্যু বাহিনীরা। এসময় চন্দ্র শেখর ন্যায়পতি বাধা দিলে ক্ষিপ্ত হয়ে নোমান তার সাথে থাকা দা দিয়ে চন্দ্র শেখর ন্যায়পতির মাথায় আঘাত করেন।
চন্দ্র শেখরের চিৎকার শুনে তার ভাই ননী গোপাল(৫৫), সজল চন্দ্র(২৬) ও ছেলের বউ রেখা রানী(৩০) এগিয়ে এলে তাদের উপর ও অতর্কিত ভাবে হামলা চালান হয়। এসময় নোমানের সাথে থাকা শাহজাহান বিশ্বাস, মামুন বিশ্বাস, মোঃ সাইফুল, মোঃ শাওনসহ তার সহযোগীরাও হামলায় অংশ নেয়। এসময় তারা লোহার রড দিয়ে এলোপাতারি ভাবে আঘাত করেন ব‌লেন অ‌ভি‌যোগ করা হয়। ঘটনার এক পযার্য়ে স্থানীয় লোকজন এসে পরলে তারা পালিয়ে যায়।
প‌রে গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা চন্দ্র শেখর ন্যায়পতি, ননী গোপাল, সজল চন্দ্র ও রেখা রানীকে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। জরুরি বিভাগে থাকা ডাঃ তাসরিফুল ইসলাম তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করে মাথায় এবং হাতে প্রচন্ড যখম দেখে উন্নতর চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেলে রেফার করেন।
এ বিষয়ে অভিযোগকারী চন্দ্র শেখর ন্যায়পতি বলেন, দীর্ঘদিন যাবত আমি এবং আমার পরিবারের লোকজনেরা আমাদের ক্রয় করা ১১৪ জেএল, ১৬৫ খতিয়ানের ৪০৪ নম্বর দাগের জমি ভোগ দখল করে আসছি, কিছুদিন যাবদ অন্যায়ভাবে নোমানেরা এই জমি দখল করে মাটি কেটে নেবার পায়তারা চালাচ্ছিলেন। ঘটনার দিন ওরা ভেকু নিয়া মাটি কাটতে আসলে আমি বাধা দিতে গেলে আমি এবং আমার পরিবারের লোকজনদের উপর এভাবে অতর্কিত হামলা চালান।
এ ঘটনার প্রেক্ষিতে রাতেই চন্দ্র শেখর ন্যায়পতি বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামী করে বাউফল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এ বিষয়ে বাউফল থানার ওসি(তদন্ত) আল মামুন বলেন, রাতে অভিযোগ পেয়েই আমরা একশনে যাই এবং মামলার ১ নম্বর আসামীকে আটক করি। বাকিদেরকে আটক করার জন্য আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি। #

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ