৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বাকেরগঞ্জে ওসি’র নেতৃত্বে পরিচ্ছন্নতা অভিযান ! 

মোঃ রাব্বী মোল্লাঃ

পরিস্কার-পরিছন্নতা ঈমানের অঙ্গ, যত্র তত্ত্ব ময়লা আবর্জনা পরিবেশ দুষণের প্রধান কারন, আর সেই দুষিত স্থানটি যদি হয় সাধারণ মানুষের নিত্য ব্যবহায্য অতি প্রয়োজনী স্থান তাহলে তো জন দুর্ভোগের অন্ত থাকেনা। তেমনি একটি স্থান হলো বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার কলসকাঠি ইউনিয়ন পরিষদের সন্মূখে পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন।  একদা ঐতিহ্যবাহী কলসকাঠি বাজারের ঐতিহ্য দু পাশে দুটো পাকা ঘাট ও চারদিকে ওয়াল দ্বারা নির্মিত পুকুরের পাশেই রয়েছে অত্যাধুনিক বসার স্থান এক কথায় অতি দর্শনীয় সৌন্দর্য মন্ডিত একটা পুকুর। কিন্তু দুঃখের বিষয় পুকুরটি বহুদিন ধরে অযত্ন অবহেলার কারণে ময়লা আবর্জনার স্তূপ জমে ব্যবহারের পুরো অযোগ্য হয়ে পরে। চারদিকে ময়লা জমে দুগর্ন্ধের ভাগাড়ে পরিণত হলেও ইউনিয়ন পরিষদ কতৃপক্ষ কিবা দায়িত্বশীল কারো নজরে আসেনি। এমনকি সরকারি পুকুরের পশ্চিম সাইডের একাংশ দখল করে এরইমধ্যে প্রভাব শালীদের অবৈধ স্থাপনা গড়ে উঠেছে। বিষয় টি নজড় এড়ায়নি বিচক্ষণ পুলিশ বাকেরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলাউদ্দিন মিলন এর । তার নজরে এলে দ্রুত পদক্ষেপ নেন পুকুরটি পরিছন্ন অভিযানের। এ কাজে সময় ক্ষেপণ না করে নিজেই কাজে হাত দেন।  প্রায় ঘন্টা ব্যাপী নিজে দাঁড়িয়ে থেকে পুকুরের পানিতে জমে থাকা ময়লা আবর্জনার স্তূপ পরিস্কার করে তিনি এলাকার সচেতন মহলের কাছে প্রশংসীত হন। তারা জানান পুকুরটি বহুদিন ধরে অযত্ন অবহেলায় পড়ে আছে। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে কেউ এদিকে নজর করেনি, এসব ময়লা জমে থাকা পানি দিয়েই নিকটতম চা বিক্রেতারা চা তৈরি করে দেদারসে বিক্রি করতো। তারা অফিসার ইনচার্জ আলাউদ্দিন মিলন সাহেবের ভূয়সী প্রশংসা করার পাশাপাশি তার এ মহৎই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাংবাদিক  সহ কলসকাঠি বাজার কমিটির নেতৃবৃন্দরা এবং বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিরা ।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ