২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
আমতলীর গুলিশাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত দুমকি প্রেসক্লাবের ২৮ বছর পূর্তি উপলক্ষে আলোচনা সভা, কেক কাটা অনুষ্ঠান কাউখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ভোলায় শ্রেষ্ঠ ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা হলেন‌ মো: ইদ্রিস মঠবাড়িয়ায় বাস চাঁপায় নিহত-১, আহত-২llচালক ও হেলপার আটক কাউখালীর ভূমি অধিদপ্তরের তিন কর্মকর্তা জেলার শ্রেষ্ঠ তথ্য মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিবের সাথে বরিশাল প্রকাশক ও সম্পাদক পরিষদের মতবিনিময় প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা করলেন চেয়ারম্যান বাজারের কীটনাশক ব্যবসায়ী! মাদারীপুরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মৌলিক প্রশিক্ষণ রাতে উড়ে গলাচিপা ভূমি অফিসে জাতীয় পতাকা

বাকেরগঞ্জে বাবুল মেম্বারকে নিয়ে ষড়যন্ত্র ! ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী

অলিউল্লাহ খান তুষার: বাকেরগঞ্জের গারুড়িয়া ইউনিয়নের একজন জনপ্রিয় ইউপি সদস্য বাবুল খান। সম্পতি একটি ধর্ষনের ঘটনায় বিচার করতে গিয়ে তার বিচার ধর্ষিতার মনোপুত না হওয়ায় ক্ষোভে বাবুল মেম্বারকে সে অভিযুক্ত করে। ধর্ষন মামলায় দুই নাম্বার আসামী করা হয় তাকে। অথচ প্রায় ১৪/১৫ জন মানুষের উপস্থিতির পরে ঘটনাস্থলে যায় বাবুল মেম্বার। এ সময় হাতেনাতে ধরা খাওয়া ধর্ষক আলাউদ্দিনকে তার অভিভাবকদের জিম্মায় দেওয়া হয় এই শর্তে যে, আগামীতে কঠোর বিচার কিংবা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কিন্তু এতে ভুক্তভোগী নারী মেম্বারের উপরে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। প্রতিপক্ষের প্ররোচনায় পরে মেম্বরকেও ঐ মামলায় দুই নাম্বার আসামী করা হয়। এ নিয়ে এলাকায় চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। যদিও মামলা করার পর থেকে বাদী লাপাত্তা।

সরে জমিনে গিয়ে জানা গেছে, বাকেরগঞ্জ গারুড়িয়া ইউনিয়নের সাহেবপুর গ্রামে পরকীয়ার কারণে ৩ সন্তানের জনক ও ২ সন্তানের জননীর মধ্যে ধর্ষনের ঘটনা ঘটে। ১ নং আসামি আলাউদ্দিন জোর পূর্বক ধর্ষন করে পালিয়ে যাওয়ার সময় বাদী সহ স্থানীয়রা ধর্ষককে আটক করেন। সংবাদ পেয়ে ধর্ষকের স্ত্রী ও মেয়ে ছাড়িয়ে নিতে এলে তাদের ও ক্ষুব্ধ জনতা ঘরের মধ্যে আটক করে রাখেন। এ ঘটনায় এক পর্যায় ধর্ষকের শ্বশুর হাচন আলী ও স্থানীয় স্বরূপ আলী গিয়ে মেম্বার বাবুল খানেকে বিচারের আশ্বাস দিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষককে নিয়ে যান। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে বাদীপক্ষ মেম্বার বাবুলকেও ধর্ষনের আসামি করে মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং১৩/২০২১।

সরেজমিনে অনুসন্ধানে জানা গেছে, অভিযুক্ত ২ নং আসামি বাবুল খান এলাকার একজন জনপ্রিয় ওয়ার্ড সদস্য। আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে তার প্রতিপক্ষের লোকদের প্ররচনায় বাদীপক্ষ মেম্বার বাবুলকেও ভিকটিম করে অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয় ওসি তদন্ত নকিব আকরাম জানান, ঘটনাটি আমি নিজেও একাধিক বার ঘটনা স্থলে গিয়ে তদন্ত করে নিশ্চিত হয়েছি। বর্তমানে আসামিদের গ্রেফতারে জোর প্রচেষ্টা অবহত রয়েছে। যে কোনো মূল্যে আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের হাতে স্বপর্দ করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ