১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বানারীপাড়ায় নলশ্রী জালিছ মাহমুদিয়া মাদরাসার মাঠ রক্ষায় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

রাহাদ সুমন,বিশেষ প্রতিনিধি॥
বরিশালের বানারীপাড়ায় নলশ্রী জালিছ মাহমুদিয়া দাখিল মাদরাসার মাঠ রক্ষায় শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছে। ১৬ নভেম্বর বুধবার বেলা সাড়ে ১২টায় মাদরাসার মাঠে শতাধিক শিক্ষার্থী এ মানববন্ধনে অংশ নেন। এসময় তারা দাবি করেন, লেখাপড়ার পাশাপাশি শরীর গঠনে খেলাধুলার জন্য মাদরাসার মাঠটি খুবই প্রয়োজন। এদিকে এর আগে ১৫ নভেম্বর মঙ্গলবার মাঠসহ সম্পত্তি রক্ষার দাবিতে মাদরাসার সুপার মাওলানা মো. আব্দুর রহিম ও ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য জামাল মুন্সী এবং জাহাঙ্গির হোসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত আবেদন করেছেন। প্রসঙ্গত, জৈনপুরী হুজুরের নামে প্রতিষ্ঠিত মাদরাসাটি তিন দফা সন্ধ্যা নদী গর্ভে বিলীণ হয়ে যাওয়ার পরে ২০০৮ সালে একই গ্রামে ৪১ শতক সম্পত্তি ক্রয় করে মাদরাসাটি স্থানান্তর করা হয়। সম্প্রতি সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের দিদিহার বটতলা বাজার হতে নলশ্রী জালিছ মাহমুদিয়া মাদরাসা হয়ে বাইশারী ইউনিয়নের বাংলাবাজার বড় ব্রিজ পর্যন্ত এলজিইডির ১ কোটি ৫৮ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ১২ ফুট প্রশস্ত কার্পেটিং রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। ঝালকাঠির মেসার্স হাসান মটরস কাজটি পেলেও সেখান থেকে ক্রয় করে বানারীপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মু. মুন্তাকিম লস্কর কায়েস রাস্তাটি নির্মাণ কাজ করছেন। বর্তমানে নির্মাণাধীন রাস্তায় ভেকু দিয়ে মাটি কাটার কাজ চলছে। মাদরাসার পূর্ব ও দক্ষিণ পাশ থেকে রাস্তা নির্মাণ কাজ চলায় মাঠটি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এছাড়া মাদরাসায় ৪তলা ভীত বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মাণের জন্য ইতোমধ্যে সয়েল টেস্ট সম্পন্ন হয়েছে। নতুন এ রাস্তা নির্মাণের ফলে মাদরাসার মাঠ সংকুচিত হওয়ার পাশাপাশি সম্পত্তি কমে যাওয়ায় প্রস্তাবিত বহুতল ভবন নির্মাণে সমস্যার সৃষ্টি হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। এ ব্যপারে ঠিকাদার মু.মুন্তাকিম লস্কর কায়েস বলেন,কার্পেটিং রাস্তা নির্মাণের জন্য ভেকু দিয়ে মাটি কাটার প্রাথমিক কাজ চলছে। মাদরাসার পক্ষ থেকে কাজ শুরুর সময় এ দাবি করলে  তা রক্ষা সহজ হত। তারপরেও  কর্তৃপক্ষের (এলজিইডির) সিন্ধান্ত মতে রাস্তাটি নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হবে। এ বিষয়ে নলশ্রী জালিছ মাহমুদিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা মো. আব্দুর রহিম বলেন, মাদরাসা ও জনস্বার্থে  রাস্তাটি খুবই প্রয়োজন । তবে মাদরাসার সীমানা থেকে মাদরাসা ও ব্যক্তি মালিকানার যৌথ সম্পত্তিতে নির্মাণ করা হলে মাঠটি রক্ষা করা সম্ভব হবে। এ ব্যপারে নলশ্রী জালিছ মাহমুদিয়া দাখিল মাদরাসার ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আবুল কালাম বালী বলেন,ঐতিহ্যবাহী মাদরাসাটি সন্ধ্যা নদী গর্ভে তিন দফা বিলীন হওয়ার পরে স্থানান্তর করা হয়। জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি মাদরাসার ৬ ফুট ও এর পাশর্^বর্তী মালিকানা সম্পত্তির ৬ ফুট নিয়ে নির্মাণ করা হলে প্রতিষ্ঠানটি ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাবে। এ প্রসঙ্গে বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার রিপন কুমার সাহা বলেন,এক পক্ষ যেন ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সে বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে এ ব্যপারে এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এদিকে ঐতিহ্যবাহী এ মাদরাসার শিক্ষক,শিক্ষার্থী,ম্যানেজিং কমিটি,অভিভাবক ও স্থানীয় শিক্ষা সচেতনমহল মাঠটি রক্ষায় স্থানীয় সংসদ সদস্য,উপজেলা চেয়ারম্যান,ইউএনও,উপজেলা প্রকৌশলীসহ সংশিল্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ