১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বাবার লাশ উঠানে, রুমাল হাতে ছেলে পরীক্ষা কেন্দ্রে

অসুস্থ হয়ে হবিগঞ্জ আধুনিক হাসপাতালে বুধবার বিকেলে বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আজিম উদ্দিন (৭৮) মারা যান। শোকে কাতর স্বজনরা নিচ্ছেন লাশ দাফনের প্রস্তুতি। এমন অবস্থায় বাবার লাশ বাড়িতে রেখে জুয়েল নামের এক শিক্ষার্থীকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়েছে। পরীক্ষা শেষে বাড়িতে ফিরে বাবার লাশ দাফনে অংশ নেয় সে।  বৃহস্পতিবার হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের ইকরতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
জুয়েল মিয়া উপজেলার চন্দ্র মল্লিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। উপজেলার গাজীপুর হাই স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে বাংলা প্রথম পত্র পরীক্ষায় অংশ নেয় সে।

পরিবার ও স্থানীয় লোকজন জানায়, জুয়েলের পরীক্ষার আগের দিন (বুধবার) তার বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আজিম উদ্দিন মারা যান। বাবা মারা যাওয়ার পর স্বজনদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।  বৃহস্পতিবার বাবার লাশ দাফনের প্রস্তুতি চলছিল। কিন্তু এসএসসি পরীক্ষা থাকায় বাবার লাশ উঠানে রেখে জুয়েল চলে যায় পরীক্ষা দিতে।

আজিম উদ্দিনের প্রথম জানাজা সাদ্দাম বাজার ঈদগা মাঠে সকাল ১১টায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় অনুষ্ঠিত হয়। পরে জুয়েল পরীক্ষা দিয়ে বাড়িতে ফিরলে দ্বিতীয় জানাজায় অংশ নেয় সে। এ সময় এলাকার সর্বস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিল।

চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিদ্ধার্থ ভৌমিক বলেন, ‘জুয়েলের বাবার মৃত্যুর খবর আমরা গতকালই জানতে পেরেছিলাম। সবার সঙ্গে বসে পরীক্ষা দিলে তার জন্য ভালো হবে ভেবে বিশেষ কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। সে এক হাতে রুমাল দিয়ে বারবার চোখ মুছছিল আর অন্য হাতে পরীক্ষার খাতায় লিখছিল।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ