১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
সপরিবারে মানবেতর জীবন যাপন করছেন ঐতিহ্যবাহী এ.কে স্কুলের প্রধান শিক্ষক চরমোনাই পীর, ভিপি নুর ও ড.কামালকে দালাল হিসেবে ব্যবহার করছে সরকার চরফ্যাসনে আলোকিত সকাল পত্রিকার ৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের অর্ধ বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত চরফ্যাসনে আলোকিত সকাল পত্রিকার ৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন খুলনার তরুণীকে কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলে আটকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১ শেখ রাসেল দিবস উদযাপন উপলক্ষে বাবুগঞ্জে প্রস্ততি সভা অনুষ্ঠিত বাবুগঞ্জে খাদ্য দিবস উপলক্ষে অলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সারাদেশে আরও ১৮৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি কোরআন সম্পর্কে অশালীন ও কুৎসিত পোষ্টঃ গৌরনদীতে ‘মহানন্দ বাড়ৈ’ আটক

ব্যাপক আনন্দ ও উৎসবের মধ্যে দিয়ে পটুয়াখালীর ইউপি’র তৃর্নমূলের ভোট শেষে প্রার্থীরা এখন ঢাকায়

মির্জা আহসান হাবিব ঃ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে,পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার লক্ষে চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী ও নেতাকর্মীরা ব্যাপক আনন্দ ও উৎসবের মধ্যে দিয়ে তৃর্নমুলের দলীয় মনোনয়নের ভোট গ্রহন শেষ করেন। বর্তমানে তৃর্নমুলের ভোট শেষে দলীয় প্রতীক নৌকা মার্কা পাওয়ার লক্ষে প্রার্থরা এখন ঢাকায়।
আগামী ১১ নভেম্বর পটুয়াখালী জেলার চারটি উপজেলার ১৯টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এর মধ্যে পটুয়াখালী সদর উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন- লোহালিয়া, আউলিয়াপুর, মরিচবুনিয়া, মাদারবুনিয়া, ছোট বিঘাই, বদরপুর ও বড়বিঘাই। বাউফল উপজেলার ২টি ইউনিয়ন নওমালা ও সূর্যমনি। দশমিনা উপজেলার ২টি ইউনিয়ন বেতাগী সানকিপুর ও দশমিনা।গলাচিপা উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন কলাগাছিয়া, বকুলবাড়িয়া, গজালিয়া, ডাকুয়া, গলাচিপা, পানপট্টি, চরকাজল ও চরবিশ্বাস।
পটুয়াখালী জেলার এই ১৯ টি ইউনিয়নে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ও দলীয় মনোনয়নের আশায় চেয়ারম্যান পদ প্রার্থীরা তৃর্ণমুলে ভোটের লড়াইয়ে মাঠে নামেন। এতে আওয়ামীলীগের দলীয় নেতাকর্মীরা ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় তার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেন। ১৯ টি ইউনিয়নেই বিরাজ করেন ভোটের আমেজ।
এ বিষয়ে পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীর সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী আলমগীর বলেন- দ্বিতীয় ধাপে পটুয়াখালীতে ১৯ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রার্থী সমর্থকদের মাঝে নির্বাচনী আনন্দ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। তৃর্ণমূলের নেতাকর্মীরা তার পছন্দের প্রার্থীকে ভোট প্রদান করেন। বর্তমানে প্রার্থীরা ঢাকায় আছেন যাতে গনতন্ত্রের মানষ কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার মনোনয়ন এবং নৌকা মার্কা নিয়ে নির্বান করতে পারেন।
১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ ধাপে দেশের ৮৪৮টি ইউপিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ২৯ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কমিশন সভা শেষে ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৭ অক্টোবর। এছাড়া মনোনয়নপত্র বাছাই ২০ অক্টোবর, বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরে ২১ থেকে ২৩ অক্টোবর, আপিল নিষ্পত্তি ২৪ ও ২৫ অক্টোবর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ২৬ অক্টোবর, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ অক্টোবর ও ১১ নভেম্বর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ধাপের ৮৪৮টি ইউপির মধ্যে ২০টি ইউপিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে। ডিসেম্বরের মধ্যে সকল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন শেষ হবে। জানুয়ারিতে জেলা পরিষদের নির্বাচন হবে।
আগামী ১১ নভেম্বর ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করে দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী এদিন দেশের ৮৪৮টি ইউনিয়ন পরিষদে জনপ্রতিনিধি নির্বাচনে ভোট নেওয়া হবে। ৮৪৮টি ইউপির মধ্যে ২০টিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট নেওয়া হবে।
২৯ সেপ্টেম্বর প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কমিশন সভা থেকে এই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ