১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ভাণ্ডারিয়ায় ছেলেদের হামলায় মৃত্যু শয্যায় মা

অনলাইন ডেস্ক :: পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় ছেলেদের হামলায় উপজেলা হাসপাতালে মৃত্যু শয্যায় রয়েছেন এক গৃহবধূ। শিউলী বেগম নামের ওই গৃহবধূকে ডাকাতি স্টাইলে হামলা চালায় তার ছেলেরা। এ ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গুরুতর আহত ওই গৃহবধূ গত ১২ দিন ধরে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এ ঘটনায় তার ছেলে ঝালকাঠি জেলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আহত গৃহবধূ কাঠালিয়া উপজেলার বানাই গ্রামের হাবিব তালুকদারের স্ত্রী।

ভুক্তভোগীর ছেলে পলাশ তালুকদার (২৭) জানান, জমিজমার জেরে গত ১২ সেপ্টেম্বর রাত দেড়টার দিকে আমার বড় ভাই সহিদ তালুকদার (৩২) ও জুয়েল তালুকদারসহ (৩৮) আরো ৪ থেকে ৫ জনের একটি দল গাছকাটার দা, রামদা, লাঠিসোটা নিয়ে আমাদের ঘরে প্রবেশ করে এবং আমার মাকে ধারালো দা দিয়ে মাথায় কোপ দিলে মাথার বাম পাশে লেগে গুরুতর জখম হয়। অপরদিকে আসামিরা আমার মাকে লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়িভাবে মারতে থাকে। এ সময় মা মাটিতে পড়ে চিৎকার করতে থাকেন। পরে আসামিরা মায়ের গলার এক ভরি স্বর্ণের চেইন, আট আনা ওজনে এক জোড়া কানের দুল ও নগদ ২০ হাজার টাকা ডাকাতি স্টাইলে নিয়ে যায়। মায়ের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে আসামিরা বলে, এ ঘটনা নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে তাদের পরিবারের সবাইকে চির তরে শেষ করে ফেলবে বলে হুমকি দিয়ে চলে যায় তারা।

আহত শিউলী বেগম জানান, ছেলেরা আমার ঘর ডাকাতি করেছে এ সময় আমি বাধা দিলে আমাকেও খুন করতে চাইছে। এ ঘটনার বিচার থানা পুলিশসহ কোথাও পাইনি। বুধবার সকালে এ ঘটনার অভিযোগের বিষয়ে আসামি সহিদ তালুকদার ও জুয়েল তালুকদারের কাছে জানতে তাদের গ্রামের বাড়িতে গেলে তাদের খুঁজে পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, আসামিদের বিরুদ্ধে এর আগেও হত্যা মামলা ছিল। এছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে চুরি ও ডাকাতি অভিযোগ রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ