২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বরিশালে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩ রাঙাবালীতে ইয়াবাসহ আটক-১ ঝালকাঠিতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে আমতলীতে গরমে মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে নারীর মৃত্যু বরিশালে পুনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ বন্ধের দাবি রাজাপুরে শিক্ষার্থীদের অনুদানের বরাদ্দ ৫ হাজার, কিন্তু পেয়েছে ৩ হাজার! বরিশালে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা বেশি থাকায় বেড়েছে শিশু শ্রমের হার নারী ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেয়ার অভিযোগ সিরাজগঞ্জে উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ প্রদান ৫ হাজার টাকা বরাদ্দ শিক্ষার্থীরা পেল ৩ হাজার রাজাপুরের সোনারগাঁও স্কুলের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বি...

ভোলায় জনপ্রিয়তার শীর্ষে উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন মনসুর

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

ইয়াছিনুল ঈমন, ভোলা প্রতিনিধি।
ভোলায় জন প্রিয়তার শীর্ষে উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত হোসেন মনসুর।
দল-মত-নির্বিশেষে ইউনিয়নের সকল বাসিন্দাদের কাছে লিয়াকত হোসেন মনসুর একজন মানবিক চেয়ারম্যান হিসেবে এখন পরিচিত ।ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সন্তান লিয়াকত হোসেন মনসুর। তার পিতা মরহুম সুলতান আহম্মদ মিয়া ১৯৪৪ সাল থেকে ১৯৬৬ সাল পর্যন্ত টানা ২২ বছর এবং পরবর্তীকালে ১৯৭৫ সাল থেকে ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত শুনামের সহিত চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি শুধু চেয়ারম্যান নন, হাজারো অসহায় পরিবারের অভিভাবক ছিলেন। তার শাসনা আমলে সহজে কাউকে মামলায় ঝড়াতে দেননি তিনি। তিনি নিজে দায়িত্ব নিয়ে এলাকাবাসীর মামলা নিষ্পত্তি করতেন। সে আদর্শগত বাবার পারিবারিক সু-শিক্ষায় শিক্ষিত আলহাজ্ব লিয়াকত হোসেন মনসুর ও তার ব্যতিক্রম নন । তিনি নিষ্ঠা ও সততার সাথে বিরোধ নিষ্পত্তি করেন। জনসাধারন তার সততা, ন্যায়পরায়নতা, ধর্ম ভীরুতা, দানশীলতা ও আদর্শবান হিসেবে উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের জনগণের মন জয় করেছেন। পূর্বে থেকেই তার পরিবারের ঐতিহ্যবাহী। তার বড় এক ভাই মোঃ ফরিদ মিয়া বিচারপতি ছিলেন। অপর ভাই বাচ্ছু মিয়া বর্তমানে হাইকোর্টের আইনজীবী হিসেবে কর্মরত। তারা সকলেই সাধারন মানুষের বিপদে আপদে পাশে থাকার চেষ্টা করেন। যে কোন স্কুল মাদ্রাসা, মসজিদ ও মাহফিলে তার উপস্থিতি ও আর্থিক সহযোগিতা সব সময় অব্যাহত থাকে। চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী মনসুর ইউনিয়নে তার নিজস্ব কোন ক্যাডার বাহিনী তৈরি করেননি । দলের ক্ষমতা না দেখিয়ে মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে আজ তিনি সর্বদলীয় লোকের মন জয় করে গরীব-দুঃখী মানুষের শান্তির চেয়ারম্যান নামে খ্যাতি অর্জন করেছেন। করোনা সঙ্কটকালে ও ইউনিয়নের গরিবদের পাশে থেকে তিনি প্রশংসা অর্জন করেছেন । বিরোধী দলীয় নেতা-কর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করেননি।

উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের বাসিন্দারা সাবেক সফল বাণিজ্যমন্ত্রী আলহাজ্ব তোফায়েল আহমেদ এমপির কাছে দাবী জানিয়েছেন আলহাজ্ব লিয়াকত হোসেন মনসুরকে পুনরায় উত্তর দিঘলদীর চেয়ারম্যান হিসেবে মনোনয়ন দেওয়ার জন্য ।

লিয়াকত হোসেন মনসুর বলেন মনসুর বলেন আমি সব সময় ইউনিয়নের সকল মানুষের সুখে দুঃখে পাশে ছিলাম,আছি ও ভবিষ্যতে থাকবো ।দল-মত-নির্বিশেষে আমার ইউনিয়নের বাসিন্দাদের সেবা করাই আমার প্রধান লক্ষ্য । আমি আবারও দলীয় মনোনয়ন পেলে বরাবরের নেয় সকলকে সাথে নিয়ে জনগণের জন্য কাজ করে যাবো ইনশাল্লাহ ।

সর্বশেষ