২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
মাদারীপুরে সিএসএস এর স্থপতি স্বর্গীয় রেভারেন্ড পল এর স্মরণে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প নবজাতককে হাসপাতালে রেখে বাবা-মা লাপাত্তা তিনমাসে ১৪৩ রোহিঙ্গার হাতে বাংলাদেশি পাসপোর্ট কুয়াকাটায় ভাঙ্গা সেতু পরিদর্শন করলেন ইউএনও গলাচিপায় ১ সন্তানের জননীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় মারধর হাসপাতালে ভর্তি নান্দনিক সংস্কৃতি বিকাশের জন্যে মাতৃভাষার চর্চা বাড়াতে হবে- লায়ন গনি মিয়া বাবুল বরিশালে আইপিডিসির শাখা উদ্বোধন সিলেটে শবে বারাতকে কেন্দ্র করে মাংসের দাম বৃদ্ধিতে বিরক্ত ক্রেতারা মহিমান্বিত রাত পবিত্র শব-ই-বরাতের ফজিলত, করণীয় ও বর্জনীয় গুড়িয়ে দেয়ার পর আবারো ইট ভাটায় কাঠ দিয়ে পুড়ছে ইট

ভোলায় চোর সন্দেহে যুবকেকে আটকে রেখে নির্যাতন

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

অনলাইন ডেস্ক :: ভোলা সদর উপজেলার ২নং ইলিশা ইউনিয়নের মাদ্রাসা বাজার থেকে মহিউদ্দিন নামের এক যুবকেকে স্থানীয় মেম্বার কামাল হোসেন ৭ ঘন্টা আটকে রেখে নির্যাতন ও মাথার চুল কেটে দেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (২৩ আগস্ট) সকালে এই ঘটনা ঘটে।

চোরের সহযোগী সন্দেহ আরো তিনজনকে আটক করে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে ইউপি মেম্বার কামালের নেতৃত্বে পরিষদে আটকে রেখে পুলিশকে খবর দিলে, ঘটনাস্থলে এসে আহত অবস্থায় পুলিশ তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

এদিকে চোর সন্দেহ্ দুইজনের মাথার চুল কাটায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সচেতন মহল। এই ঘটনায় স্থানীয় কামাল মেম্বার কে থানায় নিয়ে এসেছে পুলিশ। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কামাল মেম্বার থানায় পুলিশের হেফাজতে আছেন।

স্থানীয়রা জানান, চোর সন্দেহ করে দুইজন অটো ড্রাইভারকে কামাল মেম্বারের নেতৃত্বে আটক করে নির্যাতন করা হয়।

এই বিষয়ে কামাল মেম্বার বলেন, একজন চোর ঠিক আছে। তবে অন্যদের সন্দেহ্ভাজন হিসেবে আটক করে এলাকাবাসী আমার কাছে নিয়ে আসে।

আটক ব্যক্তির চুল কাটার বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এ বিষয়ে ভোলা সদর থানার ওসি এনায়েত হোসেন বলেন, চুল কেটে এই ভাবে নির্যাতন করা উচিত হয়নি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ