১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
নলছিটিতে কৃষককে মারধরের অভিযোগ বরিশাল বাণী’র উপ-সম্পাদক হলেন জুবাইয়া বিন্তে কবির প্রশাসনের নীরব ভূমিকা সড়কের ওপর বাজার, দীর্ঘ যানজটে মানুষের ভোগান্তি ভোলায় মহাসড়কে আওয়ামী লীগ নেতার গরুর হাট লালমোহনে মোবাইলে ডেকে বাড়িতে নিয়ে কিশোরীকে গণধ*র্ষ*ণ করল প্রেমিক ও তার বন্ধু ঈদ যাত্রা নিরাপদ করতে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে-- সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী একজন মানবিক পুলিশ কর্মকর্তা মোঃ মাসুদ রানা লায়ন মো: গনি মিয়া বাবুল বঙ্গবন্ধুর আদর্শের জাগ্রতপ্রাণ আগামীকাল বরিশালে আসছেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক শামীম এমপি ভোলায় অতিরিক্ত যাত্রী বহন: ২ লঞ্চ ও ইজারাদারকে জরিমানা

ভোলায় দুর্ধর্ষ ডাকাতি ! ৩ মাসের শিশুকে পানিতে ফেলে হত্যা

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
ইয়াছিনুল ঈমন, ভোলা প্রতিনিধি:
ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের পাঙ্গাশিয়া গ্রামে মঞ্জুর আলম নামে এক দিনমজুরের ঘরে ডাকাতি করতে গিয়ে পানিতে ফেলে ৩ মাসের এক কন্যা সন্তানকে ডাকাত দল হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
মঙ্গলবার মধ্যরাতে ওই গ্রামের মঞ্জুর আলম ড্রাইভারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনায় নিহত শিশু মঞ্জুর আলম ও শাহনাজ বেগম দম্পতির ২য় মেয়ে মারিয়া বেগম। তাদের ২ বছর বয়সী আরও একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।
বুধবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি এনায়েত হোসেন ও তদন্ত (ওসি) আরমান হোসেনসহ পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তা।
পুলিশ ও নিহত শিশুর পরিবার জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে ঘরের সামনের দরজা খুলে ৪ জন ডাকাত ঘরে প্রবেশ করেন। যাদের সকলের শরীর কালো পোশাক দিয়ে ডাকা ছিল। ঘরে প্রবেশ করার বিষয়টি টের পান মঞ্জুরের স্ত্রী শাহনাজ বেগম। একপর্যায়ে ডাকাতরা শাহানাজের হাত-পা ও মুখমণ্ডল বেঁধে ডাকাতি করেন৷ ডাকাতি চলাকালে শাহানাজের ৩ মাসের ঘুমন্ত শিশু মারিয়া সজাগ হয়ে কান্নাকাটি করলে ডাকাতরা তাকে ঘরের পিছনে থাকা পুকুরে ফেলে হত্যা করে ঘরে থাকা ১২শো টাকা ও ১ ভড়ি স্বর্নলংকার নিয়ে ডাকাত দল চলে যায়।
ডাকাত দল যাওয়ার পর কৌশলে শানাহাজ শব্দ করলে ঘরে থাকা তাঁর ঘুমন্ত স্বামী মঞ্জুর আলম ও শানাহাজের শাশুড়ী সজাগ হয়ে পুকুর থেকে শিশু মারিয়ার মরদেহ উদ্ধার করে।
পরে রাত ৩টার দিকে তাদের ডাক-চিৎকারের শব্দ শুনে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।
বুধবার সকালে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি এনায়েত হোসেন ও তদন্ত (ওসি) আরমান হোসেনসহ পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ময়নাতদন্তের জন্য শিশুটির মরদেহ নিয়ে যায়। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শিশুটির বাবা ও মাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি এনায়েত হোসেন জানান, ঘটনাটির সুষ্ঠ তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সর্বশেষ