১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ভোলায় বৃহস্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

ভোলা প্রতিনিধি ‍॥ ভোলায় পুলিশ-বিএনপির সংঘর্ষে চিকিৎসাধীন জেলা ছাত্রদল সভাপতি নুরে আলমের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে জেলায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপি। বুধবার (৩ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শহরের জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনের সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করে দলের নেতাকর্মীরা। পরে শহরে খণ্ড খণ্ড মিছিল বের করে তারা।

এ সময় শহরের সব দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। শহরের সদর রোডে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
বিক্ষোভ মিছিলে বিএনপির নেতারা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আবদুর রহমান ও ছাত্রদল সভাপতি নুরে আলম হত্যার বিচার দাবি করেন। এদিকে জেলা বিএনপির সভাপতি গোলাম নবী আলমগীর  বৃহস্পতিবার ভোলায় সকাল সন্ধ্যা হরতালের ঘোষণা দিয়ে বলেন, পুলিশের হমলায় আহত ছাত্রদল সভাপতিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। সেখানে  বুধবার দুপুর সোয়া ৩টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এ ধরনের নৃশংস হত্যাকাণ্ড আর কতদিন চলবে? আমরা স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আবদুর রহিম ও ছাত্রদল সভাপতি নুরে আলমের হত্যাকারী পুলিশ বাহিনীর বিচার দাবিতে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) সকাল সন্ধ্যা হরতাল ঘোষণা করছি।

এ হরতালের মাধ্যমে সরকারকে জানিয়ে দিতে চাই, আমরা আমাদের আন্দোলন করেই যাবো। কোনভাবেই আমাদের দমন করা যাবে না।

জেলা বিএনপির শত শত কর্মী বিক্ষোভ করছে শহরে। এছাড়া বিভিন্ন জায়গায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

জানা গেছে, লোডশেডিং ও জ্বালানি বিষয়ক চলমান পরিস্থিতির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রবিবার (৩১ জুলাই) ভোলায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে বিএনপি। সেখানে পুলিশ বাধা দিলে সংঘর্ষ বাঁধে। পুলিশের গুলিতে সেখানে স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য আবদুর রহিম প্রাণ হারান। এ ঘটনায় পুলিশ এবং বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মী আহত হন।

এর মধ্যে অনেকে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা।
সংঘর্ষের ঘটনায় নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত চার শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মীর নামে আলাদা দুটি মামলা করেছে পুলিশ।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ