২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ভোলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে নিয়োগ নিয়ে এসব কি হচ্ছে!

বরিশাল বানী ডেস্ক : দেশের বৃহওর দ্বীপ জেলা ভোলার ‘ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে নিয়োগ নিয়ে এসব কি হচ্ছে!  জনমনে নানান প্রশ্নের সৃষ্টি নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ কারীদের মুখে ও।গত  ৯ এপ্রিল যমুনা টেলিভিশনের ভোলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের নিয়োগ নিয়ে তুলকালাম কান্ড  শীর্ষক সংবাদ প্রকাশিত হয় ।
 জানা গেছে,  গত ৪ এপ্রিল  ভোলা জেলা জজ আদালতে ১৪ পদের বিপরীতে নিয়োগ দেওয়া হয় ৩২ জনকে । ঘটনাটি জানাজানি হলে ৭ এপ্রিল জেলা জজ বিজ্ঞপ্তি দেন যে, ১৪ জনই নিযোগ দেওয়া হয় কিন্তু কে বা কারা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রনোদিত হয়ে তার কার্যালয়ে স্মারক ব্যবহার করে ৩২ জনের নিয়োগপত্র ইস্যু করে। ইত্যে মধ্যে বিষয়টি নিয়ে একটি মামলা চলমান এবং তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
অদৃশ্য  কারণে আজও প্রকাশিত হয়নি না তার সঠিক ঘটনা উদঘাটন। যার ফলে  এত বড় ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে আবার শুরু হলো কোন বিজ্ঞপ্তি দেয়া  ছাড়াই  ওই ৩২ জন থেকে ১১ জন লোকের নিয়োগ প্রক্রিয়া।  ইতোমধ্যে  আদালতের ৯৫ নং স্মারক তারিখ ১৯ আগষ্ট ২১ এর আলোকে নিমোক্ত ৫ জন বেতন ভোগ করছেন। ১, মোঃ আল আমিন, পিতা-মৃত আঃ কাদের, সাং-ইউনিয়ন-আলী নগর, পোঃ মাদ্রাসা বাজার, উপজেলা ও জেলা-ভোলা। ২. আবদুল হাই, পিতা-আবদুল বারী, সাং-গ্রাম দক্ষিণ চরলামছি পাতা, পোঃ রাধাবল্লভ, থানা-দৌলতখান, জেলা-ভোলা।  ৩.মোঃ জাকির হোসেন, পিতা-লিটন, সাং-গ্রাম-শিবপুর (সরদার বাড়ী) পোঃ রতনপুর, থানা ও জেলা-ভোলা। ৪.মোঃ হাবিবুর রহমান, পিতা-মোঃ আবদুস সাত্তার, সাং-হামিদ হাওলাদার বাড়ী, গ্রাম-কানাইনগর, ডাকঘর-ভোলা সদর, ভোলা। ৫.সাইফুল পিতা মৃত নুর মোহাম্মদ হাওলাদার, সাং-৯নং ওয়ার্ড, বাউফল পৌরসভা, উপজেলা-বাউফল, জেলা-পটুয়াখালী।
  তাছাড়া অন্য এক  স্মারকে অভিন্ন তারিখে আরো ৬ জনের বেতন উত্তোলনের জন্য প্রক্রিয়া চলমান।১.মোঃ ফয়েজ, পিতা-মৃত আব্দুল হক মিজি, সাং-গ্রাম-চর লামছি ধলি, পোঃ দৌলতখান, থানা-দৌলতখান, জেলা-ভোলা।
২.মুছা কালিমুল্লাহ, পিতা-মোঃ জসিমউদ্দিন, সাং-কালিবাড়ী রোড, ৩নং ওয়ার্ড, পৌর নবীপুর, ভোলা সদর, ভোলা। ৩. মোঃ ফখরুল ইসলাম মৃধা, পিতা-সেলিম মৃধা, সাং-শেরে বাংলা সড়ক ২৪নং ওয়ার্ড, বরিশাল সিটি কর্পোরেশন, বরিশাল।৪. লুৎফুন নেছা, স্বামী-মোঃ সাইফুল ইসলাম, সাং-তালুকদার ভিলা, বাড়ী নং-৫৪০, মেডিকেল কলেজ লেন দঃ আলেকান্দা বরিশাল সদর, বরিশাল।৫. আতিকুল ইসলাম, পিতা-মোঃ আবদুল ওয়াহেদ আলী, সাং-গ্রাম মৃগামারী, পোঃ উখলী, থানা-জীবননগর, জেলা-চুয়াডাঙ্গা।৬. মোঃ জুয়েল রানা, পিতাঃ মোঃ লুৎফর রহমান সাং-কালোয়া, পোঃ কয়া, থানা-জীবননগর, জেলাঃ কুষ্টিয়া।
এব্যাপারে কথা বলতে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের বক্তব্য নিতে ফোন দিয়ে রিসিব না করায় বক্তব্য নেয়া যায়নি।
সচেতন মহল পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ কারী মেধাবীদের নিয়োগ এবং অনিয়ম বন্ধে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছে।
Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ