১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মঠবাড়িয়ায় কলেজছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা, আটক ৫

পিরোজপুর প্রতিনিধি :: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আল আমিন আকন (২১) নামের এক কলেজছাত্রকে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে। নিখোঁজের একদিন পর রবিবার দিনগত রাতে উপজেলার ভেচকী গ্রামের কৃষিজমির মাঠ থেকে পুলিশ ওই কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধার করে।

আজ সোমবার নিহত কলেজছাত্রের লাশ পিরোজপুর জেলা মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ।

নিহত কলেজছাত্র আল আমীন উপজেলার উত্তর ভেচকী গ্রামের মুদি মনোহারি ব্যবসায়ী সিদ্দিক আকনের ছেলে। তিনি বামনা উপজেলার ডৌয়াতলা ওয়াজেদ আলী খান ডিগ্রি কলেজে লেখাপড়া করে আসছিল।

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে পুলিশ অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা করেছে। আটকৃতরা হলেন, একই গ্রামের আলম আকনের ছেলে সোহেল (২০), ওয়ারেচ খানের ছেলে আলামিন (২২), আলম ব্যাপরির ছেলে আরিফ (২১), সেলিম হাওলাদারের ছেলে আরিফ (২০), মৃত গফফার মিয়ার ছেলে হুমায়ুন (২২)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, কলেজছাত্র আল আমিন শনিবার দিনগত রাত ৮টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফেরেনি। পরিবারের স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়েও তার সন্ধান পায়নি। রবিবার সন্ধ্যায় বাড়ির পার্শ্ববর্তী গ্রামের কৃষি জমিতে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসি থানায় খবর দেয়। পুলিশ রাতে ঘটনাস্থল হতে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে। নিহত আলামিনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের কোপের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশ ধারণা করছে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শনিবার রাতে ধারালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। তার লাশ কৃষিজমিতে ফেলে রাখে দুর্বৃত্তরা।

নিহত আলামিনের বাবা সিদ্দিক আকন, তার কলেজ পড়ুয়া ছেলে হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত করে হত্যাকারীদের কঠোর বিচার দাবি করেছেন।

মঠবাড়িয়া থনার অফিসার ইনচার্জ মো. মাসুদুজ্জামান ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, নিহত যুবকের বাবা বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্ততি নিচ্ছেন। পাঁচজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। খুনের রহস্য উদঘটনের জন্য সম্প্রতি স্থগিত হওয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে বিরোধ, মাদক সেবন ও নারী সংক্রান্ত বিষয় সামনে রেখে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ