১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মঠবাড়িয়ায় দাফনের ৪৩ দিন পর কবর থেকে যুবকের লাশ উত্তোলন

সোহেল,বিশেষ প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় দাফনের ৪৩ দিন পর কবর থেকে ইমরান গাজী (২৬) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে পিরোজপুর নির্বাহী ম্যজিস্ট্রে মো. নাহিদ হাসান ও ডাক্তার প্রীতম কুমার পাইক এর উপস্থিতিতে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা পিবিআই ইন্সপেক্টর আহসান কবির লাশ উদ্ধার করেন।
গত ১১ অক্টোবর সোমবার দুপুরে পৌর শহরের সবুজ নগর গ্রামের আউয়াল শরীফ এর নির্মাণাধীন ভবনের তৃতীয় তলায় একটি কক্ষে ফ্যান লাগানোর রডের সাথে ইমরানকে গলায় ফাঁস লাগানো মৃতদেহ উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ। এ ঘটনা থানায় মামলা না নেয়ায় নিহতের ভাই আব্দুল্লাহ গাজী বাদি হয়ে ১৮ অক্টেবর ৫ জনের বিরুদ্ধে মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালতের বিচারকি হাকিম মোঃ কামরুল আজাদ মামলাটি আমনে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেষ্টিকেশন (পিবিআই) কে তদন্তের আদশে দেন। ইমরান গাজী পেশায় ইলেক্টট্রিক মিস্ত্রি ছিলেন। সে পৌর শহরের সবুজ নগর গ্রামের মৃত মন্নান গাজীর ছেলে।
মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আইনজীবি এডভোকেট নাসরিন জাহান জানান, ইলেক্টট্রিক মিস্ত্রি ইমরান গাজীকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে, এমন অভিযোগে তার ভাই মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ রহস্য জনক কারনে মামলা নেয়নি। এমনকি আদালতের বহু আইনজীবির কাছে গেলেও আব্দুল্লাহ আইনী সহায়তা পায়নি। পরে তার কাছে ঘটনার বিবরণ শুনে আমি মামলা আদালতে উত্থাপন করি।
মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা পিবিআই ইন্সপেক্টর আহসান কবির বলেন, আদালতের নির্দেশে নির্বাহী ম্যজিস্টেট ও ডাক্তারের উপস্থিতিতে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর রহস্য জানা যাবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ