১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
প্রখ্যাত সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী আর নেই কর্মস্থলে সিনিয়র-জুনিয়র সম্পর্ক বরিশালে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকদের ঈদ পুনর্মিলনী ও মধুমাস উদযাপন কাউখালীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের নতুন চেয়ারম্যান প্রফেসর ডা. কাজী শহীদুল আলম ভোলায় পুলিশের সহায়তায় বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ে খুঁজে পেলো নিরাপদ আশ্রয়স্থল পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য হলেন অধ্যাপক ডাঃ মনিরুজ্জামান শাহীন নির্মিত হলো জিনিয়া জিনি'র মিউজিক ভিডিও 'ও সাথী' ঢাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী ২টি হত্যা মামলায় মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত পলাতক আসামী বিপ্লব উজিরপুরে গ্রেফতার

মঠবাড়িয়ায় নৌকার মাঝি হলেন বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর মামলার প্রধান আসামী

পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় এবার নৌকার মাঝি হলেন বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর মামলার প্রধান আসামী মো. রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দার । তিনি পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উপজেলার টিকিকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক।
জানা গেছে, গত ২০১৬ সালের ১৯ নভেম্বর উপজেলার টিকিকাটা ইউনিয়নের বাইশকুড়া বাজারের একটি ক্লাবের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে স্থানীয় কলেজ ছাত্রলীগ নেতা রুবেল আকনকে মারধর ও ক্লাবটি ভাংচুরের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় তাকে প্রধান আসামী করা হয়। আহত ওই ছাত্রলীগ নেতার পিতা ও উপজেলার ভেচকি গ্রামের ওয়ার্ড আ’লীগ সদস্য মো. পান্না আকন বাদী হয়ে ওই মামলাটি দায়ের করেন। এতে রফিকুল ইসলামকে প্রধান আসামী করে ১৩ জনকে নামীয় ও আরো ১২-১৩জনকে অজ্ঞাত করে মামলাটি দায়ের করা হয়। ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মামলাটি তদন্ত করে পরে বছর (২৯১৭ সাল) ২০ আগষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দার সহ ১০ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জসিট প্রদান করেন। মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে।
উপজেলা আ’লীগের সভাপতি মঠবাড়িয়া পৌর মেয়র মো. রফিক উদ্দিন ফেরদাউস বলেন, টিকিকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ থেকে মনোনয়ন পাওয়া মো. রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দার বঙ্গবন্ধু ও প্রধান মন্ত্রীর ছবি ভাংচুর মামলার আসামী বলে জানি। কিন্তু তার মনোয়নের তালিকায় নাম পাঠানোর সময় বিষয়টা আমার খেয়াল ছিলো না। তা ছাড়া কেহ মনেও করিয়ে দেয়ন নি। আর মনোনয়নের তালিকা পাঠান জেলা কমিটি।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত রফিকুল ইসলাম রিপন জমাদ্দারের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে ওই মামলা থেকে আদালত তাকে বাদ দিয়েছেন দাবী করে জানান, ওই ঘটনার সময় তিনি বরিশাল ছিলেন। স্থানীয় রাজনীতির কারনে তৎকালীন উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগ সদস্য মো. আশ্রাফুর রহমানের প্রতিহিংসার শিকার হয়ে ওই মামলার আসামী হয়েছেন। মামলার বাদী পান্না আকন আ’লীগ করেন না। বরং তিনি ওই ইউনিয়ন বিএনপি’র সাবেক সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন মেম্বার-এর আপন ছোট ভাই। তিনি উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাধারান সম্পাদক ও জেলা যুবলীগের বর্তমান কমিটির সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘এখন বুঝে দেখেন আমি বঙ্গবন্ধু বা প্রধান মন্ত্রীর ছবি ভাঙ্গতে পারি কিনা’।
এ ব্যাপারে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আশ্রাফুর রহমানে সাথে কথা হলে তিনি বলেন, নৌকার মনোনয়ন পাওয়া রিপন জমাদ্দারের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলার ব্যাপারে আমার কিছু জানা নেই।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ