১৮ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
দেহেরগতি আ'লীগ নেতা মাসুম রেজার নেতৃত্বে নৌকার ব্যাপক গণসংযোগ আল্লাহ’র পরে কৃতজ্ঞতা সদ্ব্যবহার ও মান্যতা পাওয়ার সবচেয়ে উপযুক্ত মাখলুক ‘পিতা-মাতা’ প্রবীন সাংবাদিক সরওয়ারের মৃত্যুঃ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র শোক বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কে রাতে ছিনতাইকালে চাইনিজ কুড়ালসহ তিন কিশোর গ্রেফতার ব্রিজের উপর বাশের সাঁকো ! কাজীরহাটে সাবেক চেয়ারম্যান বাড়ীর সম্মুখে জনদূর্ভোগ বেতাগীর কাজীরাবাদ ইউনিয়নে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সংশয় উজিরপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে দিনমজুরের আত্মহত্যা কেদারপুরে ভ্যান প্রতীকের প্রার্থীর কর্মীকে মারধর মনপুরায় নৌকা প্রতিকের প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ, আহত ২ উজিরপুরে ইউপি সদস্য’র বিরুদ্ধে টিউবয়েল বসানোর নামে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

মঠবাড়িয়ায় সন্তান হত্যার দায়ে বাবা-সৎমা গ্রেফতার

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি :: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় হানজালা নামে পাঁচ বছরের এক শিশুকে হত্যার দায়ে বাবা ও সৎমাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার সকালে আসামিদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

শনিবার সকালে নিহত হানজালার নানি হাসি বেগম মঠবাড়িয়া থানায় একটি হত্যা মামলা করলে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন- নুর নবী জুয়েল (৩৫), পৌর শহরের ৩নং ওয়ার্ডের স্লুইসগেট এলাকার ইউসুফ মোল্লার ছেলে ও তার স্ত্রী শাহানা বেগম (৩০) ও বেল্লাল (৩৬)

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বাবার বিচ্ছেদ হওয়ার পর নানির কাছে বড় হওয়া শিশু হানজালাকে গত ১৪ এপ্রিল বেড়াতে নিয়ে যায় সৎমা শাহানা বেগম। পরে শিশুটিকে অমানসিক নির্যাতন করা হয়।

আহত শিশুটিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল পাঠান।

শিশুটির বাবা ও সৎমা বরিশাল না নিয়ে গোপনে হাসপাতাল সড়কের মা ও শিশু ক্লিনিকে ভর্তি করেন। ক্লিনিকেও শিশুটির অবস্থার অবনতি ঘটলে পরে সেখান থেকে ১৫ এপ্রিল সকালে শিশু হানজালাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত্যু ঘোষণা করেন।

এদিকে অ্যাম্বুলেন্সে করে শিশুটির মরদেহ গভীর রাতে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সামনে ফেলে রেখে বাবা ও সৎমা পালিয়ে যান।

মঠবাড়িযা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদুজ্জামান বলেন, শিশুটির বাবা, সৎমা ও চাচাকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে রোববার মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা নির্যাতন করার কথা স্বীকার করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ