১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মঠবাড়িয়ায় স্ত্রী কর্তৃক স্বামী হত্যা

পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় স্ত্রী কুহিলা বেগম কর্তৃক স্বামী আবু সালেহ (৫০)কে হত্যা করে লাশ পাকঘরে ফেলে রাখা হয়েছে। শনিবার (৩০ জুলাই) সকালে স্হানীয়রা তার মরদেহ দেখতে পেয়ে থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর মিঠাখালী গ্রামে। নিহত আবু সালেহ ওই গ্রামের মৃত বারেক সুফির ছেলে। তিনি পেশায় একজন দিনমজুর ছিলেন।
মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম বাদল নিহত আবু সালেহ’র মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনার পর নিহতের স্ত্রী কুহিলা বেগম পলাতক রয়েছেন। ধারনা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রী ও তার লোকজন কর্তৃক গত শুক্রবার (২৯ জুলাই) রাতের কোন এক সময় তাকে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে দেয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। পলাতক স্ত্রীকে আটকের চেষ্টা চলছে।
থানা পুলিশ, নিহতের পরিবার ও স্হানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিহত আবু সালেহ’র তিনটি বিয়ে রয়েছে। এ নিয়ে তৃতীয় স্ত্রী কুহিলা বেগমের সাথে প্রায়ই কলহ বেঁধে থাকতো। কিন্তু তার বাড়িটি আলাদা হওয়ায় পরিবারের অন্যরা কেহ সেখানে যেতেন না। শনিবার সকালে পাকঘরের মেঝেতে তার মরদেহ দেখতে পেয়ে স্হানীয়রা থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করেন। তার গায়ে কাঁদা মাটি লাগানো রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ