২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
কলাপাড়ায় কাঁচা বাজার সড়ানো হয়নি উন্মুক্ত স্থানে ভোলায় লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে মাঠে রেড ক্রিসেন্ট উজিরপুরে কথিত চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় নিখিল নামের এক যুবকের মৃত্যু ঈদের ৫ ম দিন এটিএন বাংলায় সামিনা - সিদ্দিকের 'মানবিক কসাই' কাজীরহাটে ডিবির অভিযানে ইয়াবা সহ মাদককারবারী আটক পরামর্শঃ জমির রেকর্ড বা খতিয়ানের ভুল সংশোধনের পদ্ধতি বরিশালে হাতুড়ে ডাক্তারের অপচিকিৎসায় যুবকের মৃত্যূ উজিরপুরের হারতায় এক সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যূ বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার লাগিয়ে যাত্রী পরিবহণ সরকারি নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে জীবননগরে মোবাইল কোর্ট অব্যাহত

মনপুরায় নৌকা প্রতিকের প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ, আহত ২

ভোলা প্রতিনিধি ।

আগামী ২১ জুন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ভোলা জেলার মনপুরা উপজেলার হাজিরহাট ইউপি নির্বাচন , এ নির্বাচন উপলক্ষে ইতিমধ্যে হাজিরহাট ইউনিয়নে নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনা প্রায়ই ঘটছে । হাজিরহাট ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী দীপক চৌধুরীর কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ উঠেছে। ১৭ জুন বৃহস্পতিবার হাজিরহাট ইউনিয়নের চৌধুরী বাজারে এক হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় মনপুরা উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য মনিরুল ইসলাম ও জহিরুল ইসলাম আহত হন । আহত এরা দু’জনই হাজিরহাট ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী আপেল মার্কার মোহাম্মদ নবীর হোসেন এর সমর্থক ।

হামলায় আহত মনিরুল ইসলাম বলেন আমরা ১৭ জুন দুপুর ১২টার দিকে ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী আপেল মার্কা মোহাম্মদ নবীর হোসেনের নির্বাচনী ওয়ার্ক করে চৌধুরী বাজারে চায়ের দোকানে বসেছিলাম। সে সময় হঠাৎ করে নৌকা প্রতীকের ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী দীপক চৌধুরীর সমর্থক মিজানুর রহমান হিরা ১০ থেকে ১৫ জন লোক নিয়ে সে চায়ের দোকানে প্রবেশ করে। তারপর মিজানুর রহমান হীরা আমাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বলে তোরা চেয়ারম্যান প্রার্থী আনারস মার্কার নেজাম হাওলাদারের পক্ষে কাজ করিস। এ কথা বলে হীরা চায়ের দোকানের টেবিলের উপরে থাকা জগ দিয়ে আমার মাথায় সজোরে আঘাত করে । পরে আমি তাকে বাধাগ্রস্ত করলে হীরা ও তার সমর্থকরা আমাকে ও আমার সাথে থাকা জহিরুল ইসলামকে বেধড়ক মারপিট করতে থাকে । আমাদের চিৎকারে বাজারের লোকজন জড়ো হয়ে মিজানুর রহমান হীরা তার লোকজন নিয়ে সটকে পড়ে । আমি মাথায় প্রচন্ড আঘাত প্রাপ্ত হয়েছি তাই আমি সাথে সাথেই মনপুরা হাসপাতাল ও বর্তমানে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছি। জহিরুল ইসলাম প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাসায় অবস্থান করছে ।

আহত মনিরুল ইসলাম আরও বলেন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দীপক চৌধুরীর লোকজন আমাদেরকে প্রায়ই হুমকি-ধামকি প্রদান করে । আগামী ২১ তারিখ অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছি । এ হামলার বিষয়ে আমি তৎক্ষণাৎ মনপুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানিয়েছি । তিনি বলেছেন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে তাকে লিখিত অভিযোগ দিতে। আমি সুস্থ হয়ে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করবো।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মনপুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন এই হামলার বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা, আমার কাছে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে তদন্ত সাপেক্ষে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এদিকে ১৭ ই জুন ভোলা প্রেসক্লাবে হাজিরহাট ইউনিয়নে সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে মনপুরা ভোটাধিকার বাস্তবায়ন কমিটি। সংবাদ সম্মেলনে ভোটাধিকার বাস্তবায়ন কমিটি হাজিরহাট ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী দীপক চৌধুরীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে নীলনকশা করে জয়লাভের প্রস্তুতির অভিযোগ করেন ও প্রশাসনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তোলেন ।

এ বিষয়ে জানতে হাজিরহাট ইউনিয়ন নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী দীপক চৌধুরী ও হামলায় অভিযুক্ত মিজানুর রহমান হীরার সাথে কয়েকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ