১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মেয়রের অদুরদর্শিতা এবং আমলাতন্ত্রের প্রভাবে অশান্ত বরিশাল

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ  বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, বরিশাল জেলা কমিটির সভাপতি এম এ জলিল এবং সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. এ কে আজাদ এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, আমরা গভীর উদ্বেগ ও উৎকন্ঠার সাথে লক্ষ্য করছি, দেশ আজ বহুমাত্রিক সংকটে নিমজ্জিত। বিদেশী সা¤্রাজ্যবাদী পুজিশক্তিধর রাষ্ট্রসমূহের ব্যবসায়িক টানাটানি, সেই ক্ষেত্রে ক্ষমতার ভারসাম্য রক্ষায় মুক্তিযুদ্ধের মূল¯্রােতধারা কৌশলী পরিবর্তনে সাম্প্রদায়িক হয়ে লুটেরা ধনবাদী রূপ নিয়েছে। দেশের শাসক গোষ্ঠী সাধারণ জনগণ বিশেষ করে শ্রমিক শ্রেণীর মেহনতি মানুষের উপর আস্থা রাখতে পারছে না। আমলা, প্রশাসন, সেনাবাহিনী এবং ব্যবসায়ীক নির্ভরতার কারনে ঘুষ, দুর্নীতি, লুটপাট বহুমাত্রিকতা এখন নিয়ন্ত্রনহীন হয়ে পড়েছে। ক্ষুধা, দারিদ্র্য, বেকারত্ব, দ্রব্যমূল্যে দেশবাসী এখন বিশেষ করে মধ্যবিত্ত, গরীব শ্রমিক কৃষক ক্ষেতমজুর দিশেহারা। অপরদিকে বৈশি^ক করোনা পরিস্থিতি এই সংকটকে আরও ঘনিভূত করে তুলছে। এমনই এক পরিস্থিতিতে বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এর মাননীয় মেয়র রাজনৈতিক দূরদৃষ্টি চিন্তা না করে সামান্য তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপজেলা প্রশাসনের সাথে অপ্রত্যাশিত দ্বন্দ্বে জড়িয়েছে। ফলশ্রুতিতে শ্রমিক কর্মচারী মেহনতি মানুষ সহ বরিশালবাসী এখন চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। আমরা অবিলম্বে এর অবসান চাই। আমরা মনে করি, জেলা প্রশাসন, প্রয়োজনে বিভাগীয় প্রশাসনসহ ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের সমন্বয় আলোচনার মাধ্যমে এর একটি সুষ্ঠু এবং শান্তিপূর্ন সমাধান হতে পারে। অন্যথায় মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি শুধু ক্ষমতাসীনদেরই বিপদগামী করবে না, গোটা জাতিকে অন্ধকারের চোরাগলিতে নিয়ে যেতে পারে। জাতি ’৭৫ সাল পরবর্তী রাজনীতি দেখতে চায় না। একটি সুস্থ ধারায় গনতান্ত্রিক পদ্ধতিতে রাষ্ট্রক্ষমতাসহ স্থানীয় সরকার ব্যবস্থার পরিবর্তন ও জনগনের কাছে রাজনীতিবিদ, প্রশাসন সহ সকলের জবাবদিহিতায় আমরা বিশ্বাস করি। প্রশাসন ও আমলা নির্ভরতায় জনগনের সার্বভৌম ক্ষমতা বিনষ্ট হয়।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ