২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রবিশস্য মৌসুমে খাদ্যাবাভে গবাদি পশু পালন ঝুকিতে।

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা পটুয়াখালী,প্রতিনিধি
পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলা রবিশস্য মৌসুমে গবাদি পশু পালন নিয়ে চড়ম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে মালিক পক্ষের। এ বিষয়ে গবাদি পশু রক্ষায় সংরক্ষিত গাছবনের কাঁচা ঘাস ব্যাবহার করার আবেদন। রবিশস্য মৌসুমে এলাকায় তিল পরিমান জমি খালি নেই গরু মহিষ,ছাগল-ভেড়া বিচারণের। রবিশস্যের পাশাপাশি তরমুজ ও বোড়ো ধান চাষে আবাদি জমি পরিপূর্ণ। এমতাবস্থায় গরু ছাগল ও মহিষ পালনকারী কৃষকরা কাঁচা ঘাস নিয়ে চরম সঙ্কটে। আর এই গবাদি খাদ্যের অভাবে ইতিমধ্যে কতিপয় কৃষকের মহিষ মারা গেছে।গবাদিপশু ও মহিষের বিচারন ও কৃত্রিম সঙ্কট উত্তরণের ব্যাবস্তায় কৃষক ও মালিক পক্ষ হিমশিম। এ বিষয়ে একাধিক মহিষ-গরু পালনকারী মালিক পক্ষের মানবিক আবেদন যাহাতে “পূর্ব গোলখালী সংরক্ষিত মাঝের চর বাগান” এর কাঁচা ঘাস ব্যবহার করার সুযোগ পায়।সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাছে এমনটাই দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী মহিষ মালিকরা। বিষয়টি নিয়ে গত ৭ ফেব্রুয়ারী পটুয়াখালী – ৩ আসনের মাননীয় সাংসদ সদস্য বরাবর পূর্ব গোলখালী মাঝের চর সংরক্ষিত বাগানের কাঁচাঘাস গবাদি পশুর খাদ্য হিসাবে ব্যবহার করার জন্য আবেদন করেন গোলখালী ইউনিয়নের কৃষক মোঃ খোরশেদ আলী মৃধার ছেলে ভুক্তভোগী মহিষ মালিক মোঃ ইলিয়াস মৃধা।

সর্বশেষ