২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

রহমতপুর ইউনিয়নে নৌকা জয়ী

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

মোহাম্মাদ আলী, বাবুগঞ্জ: জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বরিশালের বাবুগঞ্জে নৌকার জয়। তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বাবুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মৃধা মু আক্তার উজ জামান মিলন ৬ হাজার ৪ শত ৪৬ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
২৮ নভেম্বর রোববার রাত ৯টায় বাবুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম আনুষ্ঠানিক ভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন।
এসময় বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস, বাবুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব কাজী ইমদাদুল হক দুলাল, বাবুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম খালেদ হোসেন স্বপন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নবনির্বাচিত রহমতপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মৃধা মু আক্তার উজ জামান মিলন, উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার মোঃ ওবায়দুল্লাহ, বাবুগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক মকিতুর রহমান কিসলু, উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিফাত জাহান তাপসী, উপজেলা উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ ছাদেকুর রহমান সুরুজসহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
রোববার (২৮ নভেম্বর) বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার রহমতপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে এই প্রথম (ইভিএম)’র মাধ্যমে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়।
রহমতপুর ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৩ জন ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।
বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, রহমতপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ২১ হাজার ৫ শত ৫৩ জন ভোটারের মধ্যে ১০ হাজার ৭শত ৭৭ জন পুরুষ ও ১০ হাজার ৭শত ৭৬ জন নারী ভোটার ছিল।
সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ২১ হাজার ৫ শত ৫৩ জন ভোটারের মধ্যে ১৪৩৯৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।
নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মৃধা মু আক্তার উজ জামান মিলন নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬ হাজার ৪ শত ৪৬ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ শাহিন হোসেন হাতুড়ি প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৩ হাজার ৯শত ৩৩ ভোট।
স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান সরোয়ার মাহমুদ আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২০২৭ ভোট।
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাওলানা আব্দুল হাকিম হাতপাখা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ১৩৭৫ ভোট।
স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ মোস্তফা কামাল সিকদার প্রার্থী ঘোড়া প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৫৭৫ভোট।
তৃতীয় ধাপের এ ইউপি নির্বাচনে একটি ইউনিয়নে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এর মাধ্যমে ভোটগ্রহণ হয়েছে। কোনো ধরনের সহিংসতা ও অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ছাড়াই সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ চলেছে। নির্বাচনে উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা প্রিসাইডিং ও সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার হিসেবে কাজ করেন। এ ছাড়া নির্বাচনে পুলিশের সদস্য, স্ট্রাইকিং পুলিশ, র‍্যাবের টিমসহ বিভিন্ন পর্যায়ের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়োজিত ছিল।

সর্বশেষ