২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লক্ষাধিক মানুষের ভোগান্তি লাঘবে চরকাউয়ায় পুনরায় ফেরী চালুর দাবীতে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

বরিশাল বাণী: আজ ২৭ জানুয়ারী বুধবার বেলা ১২ টায় বরিশাল কীর্ত্তনখোলা নদীতে চরকাউয়া খেঁয়াঘাটে পুনরায় ফেরী চালুর দাবীতে জেলা প্রশাসক জনাব জসীম উদ্দীন হায়াদার মহোদয় বরাবর বরিশাল পূর্বাঞ্চলীয় উন্নয়ন পরিষদ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

বরিশাল পূর্বাঞ্চলবাসীর অন্যতম দাবী ছিল চরকাউয়া ফেরীঘাটে ফেরী চালু করা। এ দাবীতে দীর্ঘ আন্দোলনের ফলে কীর্ত্তনখোলা নদীতে চরকাউয়া খেঁয়াঘাট এলাকায় সড়ক ও জনপথ বিভাগ ফেরী চালু করেন। এই ফেরীর মাধ্যমে বাস, ট্রাক, ট্যাংক-লড়ী, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকার, পিক-আপ, সিএনজি, মহেন্দ্র, অটোরিক্সা, মটরসাইকেল-সাইকেল, ভ্যান গাড়ীসহ বিভিন্ন যানবাহন সহজে চলাচল করায় এ অঞ্চলের জনগন সামগ্রীকভাবে উপকৃত হয়েছিল। কীর্ত্তনখোলা নদীতে দপদপিয়া এলাকায় শহীদ আঃ রব সেরনিয়াবাত সেতু চালু হলে ফেরীটি সরিয়ে নেয়া হয়। চরকাউয়া খেঁয়াঘাট হতে উভয় দিকে ১২ কিঃ মিঃ দূরত্বে সেতুটি অবস্থিত হওয়ার কারনে যানবাহনসহ ক্ষুদ্র ও মাঝারী ব্যবসায়ীগন বহুমুখী সমস্যার সম্মুখীন হয়ে আছে। উপরন্ত চরকাউয়া খেয়াঘাটে মাঝিমাল্লাদের অতিরিক্ত ভাড়া আদায় অনিয়ম বিশৃঙ্খলা ও দূর্ঘটনার কারনে জনগন অতিষ্ট হয়ে আছে।
এমতাবস্থায় পূর্বাঞ্চলের সর্বস্তরের জনগনের পক্ষে বরিশাল পূর্বাঞ্চলীয় উন্নয়ন পরিষদ চরকাউয়া ফেরীঘাটে পুনরায় ফেরি চালুর দাবী উত্থাপন করেন এবং জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেন। এ বিষয়ে অতি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জেলা প্রশাসক মহোদয় উপস্থিত নেতৃবৃন্দদেরকে আশ্বস্ত করেন।
বরিশাল পূর্বাঞ্চলীয় উন্নয়ন পরিষদ ও চন্দ্রদ্বীপ উপজেলা বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ও জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ মুনাওয়ারুল ইসলাম অলি’র নেতৃত্বে উপস্থিত ছিলেন অত্র পরিষদের সদস্য সচিব মোঃ মানিক মৃধা, আসাদুল আলম আসাদ, কামাল হোসেন চৌধুরী, এ.কে.এম. হান্নান বাবুল মুন্সী, বশির আহমেদ, মোঃ শফিকুল ইসলাম মনির, মোঃ কামাল মজুমদার, মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ ওবায়দুর রহমান মাসুম প্রমুখ।

সর্বশেষ