২৮শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
রাজাপুরের গালুয়ায় বৃদ্ধ স্বামী স্ত্রীকে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা  বিতর্কিত শিক্ষা ব্যাবস্থা বাতিল ও পাঠ্যবই সংশোধনের দাবিতে মানব বন্ধন শিক্ষার গুরুত্ব কেবল আ’লীগ সরকারই দিচ্ছে-পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আওয়ামীলীগ ও কমিনিউটি পুলিশিং এর ওয়ার্ড সেক্রেটারী গ্রেফতার বরিশালে দুই নারীর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে পুলিশ ! বরিশালে ট্রলির নিচে পড়ে ইজিবাইকের চালক নিহত তালতলীতে ২৪টি পরিবারের খোলা আকাশের নীচে জীবনযাপন কলাপাড়া জম কালো আয়োজনে রিপোর্টার্স ক্লাব'র ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। পবিত্র কোরআন শরিফ পোড়ানোর প্রতিবাদে তালতলীতে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত বরিশালে পাংশা গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ১

শালা,শ্বশুরের হামলায় জামাই শেবাচিমে ভর্তি :

নিজস্ব প্রতিবেদক : বরিশালের বিমানবন্দর থানাধীন মাধবপাশা এলাকায় শালা শ্বশুরের হামলায় জামাই মোঃ রুবেল মোল্লা(২৪) শেবাচিমে ভর্তি হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুর ১২ টায় শ্বশুরবাড়ির ভিতরে বসে তার উপর হামলা করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । আহত রুবেল ওই থানার বাদলা গ্রামের বাসিন্দা মৃত গনি মোল্লার ছেলে।

আহত সূত্রে জানা যায়, দেড় বছর পূর্বে পার্শ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ আলীর মেয়েকে বিবাহ করে রুবেল। স্বামী স্ত্রীর ভিতরে পারিবারিক তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য বিষয় নিয়ে বিভিন্ন সময় শ্বশুরবাড়ির লোকজন  হস্তক্ষেপ করে এবং বিভিন্ন সময়ে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ ও হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল।

গত বুধবার স্বামী –স্ত্রীর ভিতরে সামান্য ভুল বোঝাবুঝি হলে স্ত্রী চলে যায় তার বাবার বাড়ি। একাধিকবার রুবেল তার স্ত্রীকে আনতে গেলে তার স্ত্রী বাড়ীতে আসতে অপারগতা প্রকাশ করে। ঘটনার দিন পুনরায় তাঁর স্ত্রীকে আনতে গেলে সামান্য কথা কাটাকাটি নিয়ে শ্বশুর মোহাম্মদ ঢালি, চাচা শশুর কবির ঢালি, শালা বেলাল সহ অজ্ঞাত ৩/৪ জন সন্ত্রাসীর মিলে জামাই রুবেল কে মারধর করে। পরে স্থানীয়রা আহতকে উদ্ধার করে তাৎক্ষণিকভাবে শেবাচিমে প্রেরণ করে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে সার্জারি ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

এ নিয়ে আহত রুবেল অভিযোগ করে আরো বলেন, আমি দেড় বছর আগে বিবাহ করি। বিবাহের ২ মাস পর শ্বশুরবাড়ির লোকজন আমাকে মারধর করে। পরবর্তীতে বিবাহের ছয় মাস পরে আমাকে মারধর করে এবং আমার কাছ থেকে তিনটি স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে রাখে। তাদের কথামতো না চললে নারী নির্যাতন সহ একাধিক মামলার ভয় দেখিয়ে আসছিল। ঘটনার দিন আমার স্ত্রীকে আনতে গেলে পুনরায় আমাকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন মিলে হত্যার চেষ্টা চালায়। আমার ডাক চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ছুটে আসলে আমাকে ছেড়ে দেয়। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় আমি হাসপাতালে ভর্তি হই।

এ বিষয়ে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে বলেও আহতের স্বজনরা সাংবাদিকদের আরো জানান।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ