২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শিক্ষিকাকে কুপিয়ে হত্যার চেস্টা, গ্রেপ্তার-১

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

নিজস্ব প্রতিবেদক: চরফ্যাশন উপজেলার পূর্ব ওমরাবাজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা জান্নাতুল সীমা কে (২৪) কুপিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি খালেক মালতিয়া (৫৬) কে গতকাল চরফ্যাশন হাসপাতাল চত্বর থেকে চরফ্যাশন শশীভুষণ থানা পুলিশ গ্ৰেফতার করেছে।

জানা গেছে চরফ্যাশন উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের খালেক মালতিয়া গুরুতর আহত স্কুল শিক্ষিকা ও তার স্বজনদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করার জন্য মাথায় ভুয়া ব্যান্ডেজ লাগিয়ে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।পুলিশ নজরদারি তবে ছিল।

মামলা সুত্রে জানা যায়, আহত সীমা বেগম খালেক মালতিয়ার আপন বড় ভাইর মেয়ে। দীর্ঘদিন যাবৎ উভয় পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। বিরোধের জের ধরে ঈদের রাতে খালেক মালতিয়া ও তার সহযোগিরা সীমা ও তার পরিবারদের উপর হামলা চালায়। এ সময় ঘর থেকে দা বটি দিয়ে স্কুল শিক্ষিকা সীমা বেগমকে কুপিয়ে জখম করে।
এ ঘটনায় ১৩ এপ্রিল সীমার বোন জান্নাতুল ফেসদাউস বাদী হয়ে আবদুল খালেক মালতিয়াসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে শশীভূষণ থানায় মামলা দায়ের করেন।

শশীভূষণ থানার ওসি মু: এনামুল হক বলেন, মামলার প্রধান আসামি আবদুল খালেককে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

সর্বশেষ