১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
চল্লিশ কাহনিয়া প্রবাসী কল্যাণ সমিতির মানবিক কাজে মুগ্ধ গ্রামবাসী বরিশালে বাস-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ কিশোর নিহত পটুয়াখালীতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকীতে এসটিএস হাসপাতালের ২ দিন ব্যাপী ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প করোনায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১ হাজার ৯০৭ ভোলায় মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি, পূজা পরিষদের সভাপতি আটক ইন্দুরকানীতে নয় বছরেও সেতুতে নেই ল্যাম্পপোষ্ট, পথচারীদের ভোগান্তি পটুয়াখালীর চার সেতুতে লাইট পোস্টে আলো নেই মেহেন্দিগঞ্জে নৌ-পুলিশের অভিযানে কোটি টাকার অবৈধ কারেন্ট জাল উদ্ধার অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের কবরে চরফ্যাসন প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধাঞ্জলি

শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ডে মৃত্যু শূন্যের কোটায়

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (শেবাচিম) করোনা ওয়ার্ডে রোগী মৃত্যুর সংখ্যা শূন্যতে নেমেছে। এতে দীর্ঘ সাড়ে ৩ মাস পর স্বস্তি ফিরেছে এই হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে। এতে খুশি চিকিৎসাধীন রোগী ও তাদের স্বজনরা।

তবে শনিবারও করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৭৬ জন। এদিকে, মেডিকেল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্তের হার গত কয়েক দিন ধরে ১০ শতাংশ থেকে কিছুটা ওঠানামা করছে।

মেডিকেলের পরিচালক কার্যালয় থেকে জানা গেছে, শুক্রবার শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৭৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ জন। একই সময়ে নানা উপসর্গ নিয়ে ৮ জন রোগী করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন।

বিগত ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় কোনও রোগী মারা যায়নি। গত ঈদুল ফিতরের পরদিন ১৫ মে রোগী মৃত্যু শূন্য ছিল শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ডে। ১৬ মে থেকে মৃত্যু সংখ্যা বাড়তে থাকে। এরপর করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে একদিনে সর্বোচ্চ ২৩ রোগীর মৃত্যু হয়েছিল শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ডে। এক কথায় মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছিল শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ড। ৩শ’ শয্যার করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন ছিলেন সর্বাধিক ৩৫৩ জন রোগী।

সাড়ে ৩ মাস পর শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সর্বনিম্ন ৭৬ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন করোনা শেবাচিমের ওয়ার্ডে। এদিকে, মেডিকেল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যবে গত শুক্রবার রাতে সব শেষ রিপোর্টে ১৯২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৭ জনের করোনা পজিটিভ হয়েছে। শনাক্তের হার ১৪ ভাগ।

এর আগে বৃহস্পতিবারের রিপোর্টে ১১.২৯ ভাগ, বুধবার ৯.৮৮ ভাগ, মঙ্গলবার ১২.১৪ ভাগ, সোমবার ১১.১৭ ভাগ, রবিবার ১৪.২৮ ভাগ, শনিবার ১৭.৮৫ ভাগ এবং শুক্রবার ২০.৭০ ভাগ করোনা শনাক্ত হয়। গত বছরের ৮ এপ্রিল মেডিকেল কলেজে পিসিআর ল্যাব চালুর পর গত ৫ জুলাই সর্বাধিক ৭৩.৯৪ ভাগ করোনা শনাক্ত হয়।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ