১৮ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
গলাচিপায় নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রীর আগমনে উপজেলা আওয়ামী লীগের ফুলেল শুভেচ্ছা মাধবপাশায় ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এর উদ্যোগে নৌকার ব্যাপক গণসংযোগ দেহেরগতি আ'লীগ নেতা মাসুম রেজার নেতৃত্বে নৌকার ব্যাপক গণসংযোগ আল্লাহ’র পরে কৃতজ্ঞতা সদ্ব্যবহার ও মান্যতা পাওয়ার সবচেয়ে উপযুক্ত মাখলুক ‘পিতা-মাতা’ প্রবীন সাংবাদিক সরওয়ারের মৃত্যুঃ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র শোক বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কে রাতে ছিনতাইকালে চাইনিজ কুড়ালসহ তিন কিশোর গ্রেফতার ব্রিজের উপর বাশের সাঁকো ! কাজীরহাটে সাবেক চেয়ারম্যান বাড়ীর সম্মুখে জনদূর্ভোগ বেতাগীর কাজীরাবাদ ইউনিয়নে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সংশয় উজিরপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে দিনমজুরের আত্মহত্যা কেদারপুরে ভ্যান প্রতীকের প্রার্থীর কর্মীকে মারধর

সংবাদ প্রকাশের পর কাজীরহাটে জুয়ারুদের খুঁজছে পুলিশ

রাসেল কবির:

সংবাদ প্রকাশের পর এবার কাজীরহাট থানা পুলিশ খুঁজছে জুয়ারুদের। বিভিন্ন সূএে জানায়, র্দীঘ কয়েক মাস যাবৎ জুয়ারুদের আস্তানা গড়ে উঠেছে কাজীরহাটের পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের গ্রাম গঞ্জে। জুয়ারুদের অতিষ্টে জীবন যাপন করছে সাধারন গ্রামের লোজন। যে খানে সেখানে ব্যাঙ্গের ছাতার মতো জুয়ারুদের আস্তানা দেখা গেছে। এই আস্তানায় লক্ষ লক্ষ টাকার জুয়া খেলা চলছে। কয়েকদিন যাবৎ অনলাই প্রোর্টাল ও প্রিট পএিকায় জুয়ারুদের বিরুদ্ধে শিরোনাম প্রকাশিত হলে বিষয়টি নজরে পড়ে কাজীরহাট থানা প্রশাসনের। গত ২/৩ দিন যাবৎ প্রশাসনের মহড়া বিভিন্ন স্থানে জুয়ারুদের বিরুদ্ধে। জুয়ারুদের কাউকে আটত করতে না পারলেও বিভিন্ন স্থানে গিয়ে প্রশাসন তথ্য সংগ্রহ করছে জুয়ারুদের বিরুদ্ধে বলে জানাগেছে। কাজীরহাট থানা এস, আই সুশান্ত ও সঙ্গিয় ফোর্স বানঘাট বাজার হতে সাইদুল তাং কে কাজীরহাট থানায় নিয়ে আসে। কাজীরহাট অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ সাজ্জাদ হোসেন জুয়ারুদের বিষয় তথ্য জানতে চাইলে সাইদুল তাং জানায়, আমি জুয়া খেলা ছেড়ে দিয়েছি পূর্বে জড়িত ছিলাম। বিদ্যানন্দপুর আঃ জলিল মিয়ার পরিতেক্তা ইট ভাটায় বর্তমানে খেলা চলে। ইউপি সদস্য ইকবাল কবির আজম প্রশসনের নিকট জানায়, জুয়া খেলা অব্যহত ভাবে চলে। ইট ভাটায় সিন্ডিকেটের মাধ্যমে জুয়া পরিচালনা করছে এক দল জয়ারুরা। স্থাণীয়দের অভিযোগ রয়েছে বিভিন্ন আস্তানায় জুয়া খেলা চলছে থানা পুলিশ কে ম্যানেজ করে। নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক কাজীরহাট (এক) এ এস আই গাবথলী বাজার সংলগ্ন হতে ২ টি জুয়ারুদের আস্তানা থেকে অর্থ হাতিয়ে নিয়ে জুয়ারুদের খেলার সুযোগ করে দেয় বলেও অভিযোগ রয়েছে। জয়নগর ইউনিয়নের ঘোড়াঘাট গুচ্ছ গ্রামের অহিদের দোকানে প্রতিদিন চলছে জুয়া খেলা। অহিদের ভাই সহিদ কে জুয়ার আসর থেকে দেওয়া হয় মোটা অংকের টাকা এই টাকা যাচ্ছে স্থাণীয় প্রভাবশালীর পকেটে। লতা ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান নেহালের কাছে জয়ারুদের বিষয় জানতে চাইলে তিনি জানায়. প্রতিটি ইউনিয়নের গ্রামে অবাধে চলে জুয়া খেলা প্রশাসন কঠোর পদক্ষেপ নিলে অটিরেই বন্ধ করা সম্ভব। কাজীরহাট থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ সাজ্জাদ হোসেনের সাথে আলাপ করলে তিনি জানায়, জুয়ারুদের আস্তানা সর্ম্পকে তথ্য পেলে প্রশাসন গিয়ে ধরে আনবে জুয়ারুদের বিরুদ্ধে কোন আপোষ নেই।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ