১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

সরকারী বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন নিয়ে পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

শামীম আহমেদ :: ঐতিহ্যবাহী সরকারী বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবীতে ও সরকারী বরিশাল কলেজের নাম মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের নামকরণে নগরের প্রাণকেন্দ্র সদররোডে পাল্টাপাল্টি মুখামুখি বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, গণ স্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেছে সরকারী বরিশাল কলেজের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের ব্যানারে জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ সহ যুবলীগ। অপরদিকে একই সময়ে বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেছে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) বরিশাল জেলা আহবায়ক কমিটি ও অঙ্গ সংগঠন।

বর্তমান সরকারের শাষন আমলের দীর্ঘ ১২ বছরের মধ্যে এই প্রথম বরিশালে সরকারী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মুখামুখি ও পাল্টাপাল্টি সরকারী বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন নিয়ে ব্যাপক পুলিশের উপস্থিতিতে শান্তিপূর্ণ অহিংষ বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।আজ বুধবার (১৫ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টায় নগরের প্রাণকেন্দ্র সদররোডে সরকারী বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবীতে সাবেক বর্তমান শিক্ষার্থীরা এক গণ স্বাক্ষর কর্মসূচির আয়োজন করে।

এর কিছুক্ষণ পরপরই নগরের ফকিরবাড়ি রোডস্থ বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) বরিশাল জেলা আহবায়ক কমিটি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা বরিশালের প্রাণ পুরুষ মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তকে যথাযোগ্য মর্যাদা দিয়ে অবিলম্বে সরকারী বরিশাল কলেজকে ‘মহাত্মা অশ্বিনী কুমার সরকারী কলেজ নামে সুপারিশ বাস্তবায়ন করার দাবীতে রিক্সা শ্রমীক, বাস্তহারা ও একদল শিশুদের নিয়ে এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে।
মিছিলটি নগরের বিভিন্ন সগড়ক প্রদক্ষিন করে পুনরায় সদররোড ফিরে এসে গণ স্বাক্ষর কর্মসূচির আয়োজন করা অনুষ্ঠানের রাস্তার বিষ গজ অপরপ্রান্তে আষাড়ের বৃষ্টি উপেক্ষা করে মুখামুখি দাঁড়িয়ে পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ শ্লোগান দিয়ে সমাবেশে বক্তব্য দিতে থাকেন উভয় দলের নেতৃবৃন্দ।

এসময় গণস্বাক্ষর কর্মসূচির আয়োজন করা সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীর ব্যানারে সরকারী সংগঠনের ছাত্রলীগ ও যুবলীগ সংগঠনের নেতাকর্মীরা পাল্টা শ্লোগান সহ সমাবেশে বক্তব্যের আয়োজন করে।সরকারী বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবী ও গণ স্বাক্ষর কর্মসূচির উদ্বোধন করেন সাবেক ভিপি একে এম জাহাঙ্গির হোসেন। বক্তব্য রাখেন সাবেক বরিশাল কলেজের ছাত্রলীগ সংগঠনের ভিপি ও বর্তমান বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. একে এম জাহাঙ্গির হোসেন, সাবেক শিক্ষার্থী ও বরিশাল ‌‌‌‌‍‍‍‍ল’ কলেজের সাবেক ভিপি ও বিসিসি প্যানেল মেয়র এ্যাড. রফিকুল ইসলাম খোকন ,এ্যাড. গোলাম সরোয়ার রাজিব, সাবেক শিক্ষার্থী বিসিসি কাউন্সিলর গায়েত্রী সরকার পাখি, হাসান মাহমুদ বাবু, ইমরুল আহমেদ উজ্জল, জিয়াউর রহমান জিয়া, রাজিব খান, মোস্তাফিজুর রহমান অনিকসহ বিভিন্ন সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা বক্তব্য রাখেন।

এসময় সাবেক ভিপি এ্যাড. একেএম জাহাঙ্গির হোসেন বলেন, সরকারী বরিশাল কলেজের নির্বাচিত ছাত্র সংসদের ভিপি ছিলাম তখন তো নাম পরিবর্তনের বিষয়ে নিয়ে আজকের সুশিল সমাজের ব্যাক্তিরা কোন কথা বলেন নাই। তবে আজ কেন নাম পরিবর্তনের জন্য তাদের এত মাথা ব্যাথার রহস্য কি বরিশালবাসীর মাঝে নতুন করে প্রশ্ন উঠেছে।
তিনি আরো বলেন, আমরা কেহ মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তকে খাটো করে দেখি না। তার এই বরিশাল শহরের শিক্ষাঙ্গনে অনেক অবদান আছে। আমরা চাই সরকারী বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রেখে তার নামে এখানে মিউজিয়াম, ছাত্র হোষ্টেল স্থাপন করার দাবী জানান। পাশাপাশি নাম অপরিবর্তিত রাখার ক্ষেত্রে আমরা গণতান্ত্রিক প্রন্থায় এ আন্দোলন চালিয়ে যাব এখানে কেহ বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না।
অপরদিকে সমাজতান্ত্রিক দর (বাসদের) ব্যানারে আয়োজন করা বিক্ষোভ সমাবেশে জেলা আহবায়ক ইমরান হাবীব রুমনের সভাপতিত্বে বিক্ষোভে বক্তব্য রাখেন বাসদ জেলা আহবায়ক ডাঃ মনীষা চক্রবর্তী, মাক্সবাদী নেতা সাইদুর রহমান, জেলা কমিউনিস্ট পার্টি জেলা সম্পাদক দুলাল মজুমদার, ছাত্র ইউনিয়ন বরিশাল জেলা সভাপতি সম্পা দাস, ছাত্রফ্রন্ট সভাপতি সাগর দাসসহ বিভিন্ন বাম সংগঠনের ছাত্র নেতৃবৃন্দ।

এখানে মনীষা বলেন, আজকে যেখানে সরকারী বরিশাল কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এ জমি মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের পৈত্বিক সম্পত্তি। তাই তার নামেই কলেজের নামকরণ করার জন্যই বিভিন্ন মহল থেকে প্রস্তবনার কারনে শিক্ষা মন্ত্রলয়ে জেলা প্রশাসক প্রস্তাব প্রেরন করেছে। আজকে বর্তমান সরকার অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে কলেজের নামকরণ করতে চাইছে সেখানে সরকারী দলের সদস্যরা বিরোধীতা করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংশ করছে। তাই বরিশাল থেকে শিক্ষামন্ত্রালয়ে যে প্রস্তবনা পাঠানো হয়েছে তা কার্যকর দাবী জানান।অন্যদিকে মঙ্গলবার শহীদ আঃ রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এ্যাড. মানবেন্দ্র ব্টব্যালকে আহবায়ক, কেএস মহিউদ্দিন মানিক (বীরপ্রতিক) কে যুগ্ম আহবায়ক, উদীচী বরিশালের সভাপতি ও সাংবাদিক সাইফুর রহমান মিরনকে সদস্য সচিব এবং মহাত্মা অশ্বিনী কুমার স্মৃতি সংসদের সভাপতি স্নেহাংশ বিশ্বাষকে সমন্বয়কারী করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট সরকারী বরিশাল কলেজকে মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের নামে নামকরণ বাস্তবায়ন কমিটি করা হয়েছে।এদিকে নগরীতে হঠাৎ করে নগরের প্রাণকেন্দ্র সদররোডে ব্যাপক পুলিশ ও গোয়েন্দা শাখার পুলিশ মোতায়েন করা প্রসঙ্গে কোতয়ালী মডেল থানার ইনচার্জ (ওসি) নুরুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সকলের গণতান্ত্রিক আন্দোলন করার অধিকার আছে। সেখানে কেহ যেন আন্দোলন ও সমাবেশের নামে আইন শৃঙ্খলার অবনতি বিঘ্ন ঘটাতে না পারে সেজন্য শহরের সাধারন মানুষের জানমাল নিরাপত্তার স্বার্থে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখার জন্য রাখা হয়েছে।”

সর্বশেষ