৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
চরফ্যাশন প্রেসক্লাবের বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ অনুষ্ঠিত  বরিশালের জন্য নগদের ২০ লাখ টাকার পুরস্কার দৌলতখানে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরায় ১৫ জেলের কারাদণ্ড বেতাগীতে ঠিকাদারের গাফিলতিতে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি বরিশাল প্রেসক্লাব সভাপতির মৃত্যুতে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর শোক না ফেরার দেশে বরিশাল প্রেসক্লাব সভাপতি কাজি নাসির উদ্দিন বাবুল স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে, স্মার্ট নাগরিক তৈরি করতে হবে- চীফ হুইপ নূর-ই-আলম লিটন চৌধুরী নিরাপদ, স্বাস্থ্যসম্মত ও রপ্তানিযোগ্য শুটকি উৎপাদনে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ পবিপ্রবিতে ক্লাস-পরীক্ষা চালু করতে প্রশাসনের সাথে শিক্ষার্থীদের আলোচনা উজিরপুরে ৫ কেজি গাজা সহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক।

সুগন্ধা নদীর ভাঙন রোধের দাবিতে ঝালকাঠিতে মানববন্ধন

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

ঝালকাঠি প্রতিনিধি :: সুগন্ধা নদীর অব্যাহত ভাঙন রোধের দাবিতে নলছিটিতে মানববন্ধন করেছে সচেতন এলাকাবাসী।

নলছিটির সুগন্ধা নদীর অব্যাহত ভাঙনের ফলে অসংখ্য পরিবার গৃহহীন হওয়ার পাশাপাশি বেশ কিছু সড়কও ভাঙনের মুখে পড়েছে।

২২ আগস্ট রোববার সকাল ১০টায় পৌরসভার মল্লিকপুর ও খোঁজখালী এলাকায় এ মানববন্ধনের আয়োজন করে স্থানীয়রা।

মানববন্ধনে সুগন্ধা নদীর ভাঙন কবলিত এলাকার শতাধিক পরিবারের মানুষসহ সচেতন এলাকাবাসী অশং গ্রহণ করেন। তাদের দাবি দীর্ঘদিন ধরে সুগন্ধা নদীর অব্যাহত ভাঙনে নলছিটি পৌরসভা সহ উপজেলার বিভিন্ন জনপদ বিলীন হতে চললেও ভাঙন রোধে স্থায়ী কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে না। যার ফলে মানুষের বাড়ি-ঘর, ভিটে-মাটি,ফসলি জমি ও অনেক গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে এবং হচ্ছে।

মানববন্ধন শেষে নদী ভাঙন রোধে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্থানীয় সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু ও পানী সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রধান করা হয়। স্মারকলিপিটি জেলা প্রশাসক’র পক্ষে গ্রহণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুম্পা সিকদার।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন- বালী তাইফুর রহমান তূর্য, এফ এইচ রিভান, মোহম্মদ মাহবুবুর রহমান, মোহম্মদ শাহ জালাল, মোহম্মদ আনিসুর রহমান, ডাক্তার সালাম, ডাক্তার মাইনুল ইসলাম মিলন, মোহম্মদ কামাল, মোহম্মদ দ্বীন ইসলাম প্রমুখ।

সুগন্ধা নদীর ভাঙন কবলিত এলাকা গুলোর মধ্যে নলছিটি-বরিশাল সড়কের মলি­কপুর খোঁজাখালী এলাকা, পুরানবাজার, দপদপিয়া ফেরিঘাট উল্লেখযোগ্য। এছাড়াও ষাটপাকিয়া ফেরিঘাট, মাটিভাঙা, সরই, বারৈকরণও সুগন্ধার ভাঙনের কবলে। বক্তরা দ্রুত ভাঙন রোধের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।

অন্যদিকে বিষখালি নদীর ভাঙনে উপজেলার বেশ কটি ইউনিয়নের নদী তীরবর্তী মানুষের ঘরবাড়ি ও ফসলী জমির ব্যপক ক্ষতি হচ্ছে।

সচেতন মহল সুগন্ধা ও বিষখালী নদীর ভাঙন প্রতিরোধ কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

 

 

 

সর্বশেষ