৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
চরফ্যাশন প্রেসক্লাবের বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণ অনুষ্ঠিত  বরিশালের জন্য নগদের ২০ লাখ টাকার পুরস্কার দৌলতখানে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ ধরায় ১৫ জেলের কারাদণ্ড বেতাগীতে ঠিকাদারের গাফিলতিতে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি বরিশাল প্রেসক্লাব সভাপতির মৃত্যুতে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর শোক না ফেরার দেশে বরিশাল প্রেসক্লাব সভাপতি কাজি নাসির উদ্দিন বাবুল স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে হলে, স্মার্ট নাগরিক তৈরি করতে হবে- চীফ হুইপ নূর-ই-আলম লিটন চৌধুরী নিরাপদ, স্বাস্থ্যসম্মত ও রপ্তানিযোগ্য শুটকি উৎপাদনে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ পবিপ্রবিতে ক্লাস-পরীক্ষা চালু করতে প্রশাসনের সাথে শিক্ষার্থীদের আলোচনা উজিরপুরে ৫ কেজি গাজা সহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক।

জমি দখলে নিতে প্রয়োজনে দশটি মার্ডার করা হবে !

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

হারুন অর রশিদ, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি।
বরগুনার আমতলীতে চাঞ্চল্যকর সাত খন্ড হত্যা মামলার আসামী ও বরখাস্তকৃত সেনাসদস্য শাহআলম কর্তৃক ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে জমি দখল করে নেওয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূক্তভোগীরা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় আমতলী রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয়ে উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের পূর্ব কুকুয়া গ্রামের আঃ লতিফ হাওলাদারের পুত্র মোঃ সোহেল হাওলাদার ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষে এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সোহেল হাওলাদার অভিযোগ করেন, আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের গেড়াবুনিয়া গ্রামের মৃত্যু আমজেদ হাওলাদারের পুত্র ১২ বছর পূর্বে পালিয়ে আসা সেনা সদস্য (বরখাস্ত), একই গ্রামের চাঞ্চল্যকর সাতখন্ড শহিদ মাস্টার হত্যা মামলার এজাহার নামীয় আসামী ও এলাকার চিহ্নিত সুদখোর মোঃ শাহআলম হাওলাদার। গত ২০ বছর পূর্বে আমার চাচা মোঃ আইয়ূব আলী হাওলাদারের কন্যা বিউটি বেগমকে বিয়ে করেন শাহআলম হাওলাদার। বিয়ের ৫ বছর পরে চাচা আইয়ূব আলী হাওলাদারের অংশ থেকে জামাতা শাহআলম ও তার মেয়ে বিউটি বেগমের কাছে খাকদান মৌজার ১০২ ও ১০৪ খতিয়ান থেকে ৪২ শতাশং জমি বিক্রি করেন। এই খতিয়ানে আমার পিতাসহ আরো পাঁচ জন চাচাদের ক্রয়কৃত ৪ একর ৮ শতাংশ জমি রয়েছে। কিন্তু ওই খতিয়ান থেকে শাহআলম যে পরিমান জমি ক্রয় করেছে তার চেয়ে বেশী জমি দখল নিয়ে ঘর তুলতে গেলে আমিসহ অন্যান্য ওয়ারিশরা তাতে বাঁধা দেই।

এই বাঁধা উপেক্ষা করে গত ২২ জুলাই শাহআলম দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী ভাড়া করে এনে ওই বিরোধীয় জমিতে ঘর তুলতে যায়। এতে আমরা বাঁধা দিলে শাহআলম সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আমাদেরকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয় এবং আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও হয়রানীমূলক মামলা দেওয়ার হুমকি প্রদান করেন। তিনি সংবাদ সম্মেলনে আরো উল্লেখ করেন, শাহআলম হুমকি দিয়ে বলেন ওই জমি দখল নিতে প্রয়োজনে দশটি মার্ডার করা হবে। যা মুঠোফোনের কথোপকথনে রেকর্ড করা আছে। তিনি আমাদেরকে গুলি করে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে আমতলী থানায় আজ (বৃহস্পতিবার) একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। সাধারণ ডায়েরী নাম্বার -১০০৫/২৩ জুলাই ২০২০ইং।

অভিযুক্ত বরখাস্তকৃত সেনা সদস্য শাহআলম মুঠোফোনে (০১৭৬—–০১) আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা। আমার ক্রয়কৃত জমিতে ঘর তুলতে গেলে উল্টো তারাই আমাকে বাঁধা দেয়।

আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহআলম হাওলাদার বলেন, এ বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন হেলাল প্যাদা, সোহাগ হাওলাদার, আব্বাস হাওলাদার, আব্দুল হক হাওলাদার, খোকন হাওলাদার প্রমুখ।

সর্বশেষ