২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মঠবাড়িয়ায় পরাজিত নারী প্রার্থীর হামলায় ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি :: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার বেতমোর রাজপাড়া গ্রামে সম্প্রতী অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে পরাজিত হয়ে পূর্ব বিরোধের জের ধরে হামলার ঘটনায় নির্বাচিত মহিলা মেম্বারের স্বামীসহ ১০ জন আহত হয়েছে। পরে তাদের মধ্যে ৬ জনকে বরিশাল শের-ই- বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসাধীন ৬ জনের মধ্যে ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মঙ্গলবার (২২ জুন) সকাল সাড়ে ১১ টায় ঘটনার পর থেকে তারা অচেতন অবস্থায় রয়েছে। এ ঘটনায় মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে- গত ২১ জুন অনুষ্ঠিতব্য ইউপি নির্বাচনে উপজেলার বেতমোর ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে মিনারা ফারুক নির্বাচিত হওয়ার পরের দিন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রানী বেগম ও তার স্বাী বেল্লাল হামলা চালায়। হামলায় নির্বাচিত ওই ইউপি সদস্যের স্বামী মোঃ ফারুক, দুই ছেলে মারুফ ও রাকিবসহ ৬ জন গুরুতর জখম হয়। তাদেরকে উদ্ধার করে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বরিশাল শেবাচিমে প্রেরন করেন।

এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নুরুল ইসলাম বাদল বলেন ,এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ এ পর্যন্ত একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ