২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বরিশালে রাজমিস্ত্রীর সাথে পালিয়েছে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

রাসেল কবির:
মুলাদী উপজেলার পশ্চিম চরলক্ষিপুর গ্রামের মোঃ আঃ রাজ্জাক মিয়ার কন্যা ৮ম শ্রেণীর পড়–য়া শিক্ষার্থী মোঃ জান্নাতুল ফেরদৌস (জান্নাত) (১৪)। গত ২১ জুন পার্শ্ববর্তী উপজেলা মেহেন্দিগঞ্জের কাজীরহাট থানাধীন আন্ধারমানিক ইউনিয়নের আজিমপুর গ্রামের মৃত্যু আঃ রহিম সরদারের ছেলে রাজমিস্ত্রি ফেরদাউস সরদারের সাথে বিবাহর হলফনামা বরিশাল নোটারী করেন যাহার নং ৫১৪৪ তাং ২১/৬/২১ইং।

বিভিন্ন সূএে জানাগেছে, মেয়ের অবিভাবক মেয়েকে কাছে পাওয়ার জন্য হন্ন্য হয়ে খুঁজছে। এমন কি কয়েকদিন পূর্বে মেয়ের মা মোসাঃ নাজমা বেগম ও খালা কাজীরহাটের আজিমপুর গ্রামে ছেলের বাড়িও খুঁজলেও সন্ধান মেলেনী মেয়ের বলে জানাগেছে। আজিমপুর গ্রামে ছেলের বাড়ি সরজমিনে গেলে ঐ বাড়ির লোকজনেরা জানায়, ছেলে ঘটনার পর বাড়ি ছেড়েছে। মা জামাতার বাড়ি বেড়াতে গেলেও বসত ঘরে রেখে গেছে বড় পুএবধু কে। তিনি ও বাড়ি ছিল না বাবার বাড়ি মুলাদী গিয়েছে বলে বাড়ির লোকজনেরা জানায়। বাড়ির পাশের আতিœয় সৌদী প্রবাসী মোঃ মনির হোসেন চৌধুরী জানায়, ছেলে মেয়েকে নিয়ে কোথায় আছে কেউ জানেনা তবে এক সাথে আছে ঘটনা সত্যি। ক”দিন পূর্বে মেয়ের মা ও খালা এসেছিল ছেলের বাড়িতে তখন কাউকে পায়নী। আমার কাছে ছেলের মা ফোন করে বলেছিল খোঁজ নিয়ে দেখেন কোথায় আছে। যদি ওরা বিবাহ করে থাকে তা হলে একটা ডকুমেন্ট যেন হয়। ডকুমেন্ট যদি না হয় কিছুদিন পর মেয়েকে বাড়ি পাঠিয়ে দিলে আমরা কি করবো। অবশেষে আমার কাছে একটি নোটারীর কপি মোবাইলে ছিল আমি পাঠিয়ে দিলাম এর বেশী কিছুই জানীনা। ছেলের ভাই ফয়সাল কে সংবাদ দিলে সাংবাদিকের কথা শুনে বাড়ি আসি বলে কিছুক্ষন পর মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে রাখে।

 

সর্বশেষ