১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

জমি সংক্রান্ত বিরোধে ভাসুররা পিটিয়েছে ভাইয়ের বউকে

 

হারুন অর রশিদ,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ
বরগুনার আমতলীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধে ছোট ভাই জসিম মোল্লার বধুকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে আমতলী থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
জানাগেছে, উপজেলার চাওড়া ইউনিয়নের ঘটখালী গ্রামের মেনাজ উদ্দিন মোল্লা ৭০ শতাশেংর রেকর্ডীয় মালিক (ঘটখালী মৌজা-৬৪৮, এস.এ খতিয়ান)। মেনাজ মোল্লার ছোট পুত্র জসিম মোল্লা পিতার রেকর্ডীয় জমিতে একটি টিনের ঘরে বসবাস করে আসছিল। পরবর্তীতৈ সেখানে একটি বিল্ডিং করে মা ও মানসিক ভারসাম্যহীন বোনকে নিয়ে বসবাস করতে ছিল। জসিম মোল্লার পিতা মেনাজ মোল্লা ২০০৯ সালে তৎকালীন চেয়ারম্যান মৃতঃ শাহজাহান তালুকদারের এক সভায় ১৫০ টাকার স্ট্যাম্পে জমিটি দান করেন। গত ২৮/৬/২০২১ তারিখ জসিমের দুই ভাই নাসির মোল্লা ও বশির মোল্লা দলবলসহ বাড়ীতে ইটবালু নিয়ে ঘর তোলার উদ্দেশ্যে দখল করতে আসে। জসিম বাঁধা দিলে তাকে ও স্ত্রীকে মারধরের এক পর্যায়ে ৯৯৯ এ ফোন করলে পুলিশ উদ্ধার করে ও কাজ বন্ধ করে দেয়। শনিবার (২৪/৭/২০২১) বিকাল ৫টায় জসিমের দুই ভাই নাসির মোল্লা ও বশির মোল্লা, নাসিরের পুত্র নাজমুর হাসান, নাসিরের স্ত্রী তাসলিমা ও শ্যালক তোফা অহেতুক জসিম ও তার স্ত্রীকে গালাগাল ও জীবন নাশের হুমকী দেয়। এক পর্যায়ে তারা জসিমকে বেধরক মারধর করতে থাকে। স্ত্রী জুলিয়া এগিয়ে আসলে তাকে হাতুরী ও লাঠি দিয়ে পায়ে, পিঠে, হাতে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে পিটিয়ে জখম করে এবং তাকে আটকিয়ে রাখা হয়। এসময় পুলিশকে খবর দেয়া হলে পুলিশ এসে জুলিয়াকে উদ্ধার করে। আহত জুলিয়াকে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।
জসিম মোল্লার স্ত্রী আমতলী হাসপাতালে কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমরা কি দোষ করেছি, আমাদের এ অবস্থায় পরতে হলো কেন? আমাকে ও আমার স্বামীকে বেধরক মারধর করে তারা মেরে ফেলতে চেয়েছিল। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।
জসিম মোল্লা বলেন, আমার দুই ভাইদের আমি সবসময় অর্থ ও সামাজিক ভাবে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য চেষ্টা করে আসছি। আমাকে ও আমার স্ত্রীর উপর এ রকম অমানবিক অত্যচার করবে তা আমি ভাবতে পারিনি। আমি ও আমার স্ত্রীর নিরাপত্তা হীনতায় ভুগতেছি।
আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শাহ আলম বলেন, ঘটনা শুনে পুলিশ পাঠিয়েছি। কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ