২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বরিশাল বিভাগে করোনায় সবচেয়ে কম শনাক্তের দিনে মৃত্যুশূন্য

অনলাইন ডেস্ক :: বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৪০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২ দশমিক ৫০ শতাংশ। এটি গত ৯০ দিনের হিসাবে সবচেয়ে কম শনাক্তের রেকর্ড।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০ জনের নমুনা পরীক্ষায় একজনের পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ১ দশমিক ১১ শতাংশ। এটি ওই মেডিকেল কলেজে গত সাড়ে ছয় মাসের হিসাবে সবচেয়ে কম শনাক্তের রেকর্ড। একই সময়ে বরিশাল বিভাগের ছয় জেলায় করোনায় সংক্রমিত কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি।

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর ও শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো করোনা-সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম বলেন, রোববার সকাল ৮টা থেকে আগের ২৪ ঘণ্টায় এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে করোনা আক্রান্ত বা উপসর্গ নিয়ে কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি।

হাসপাতালের ৩০০ শয্যার করোনা ইউনিটে রোববার সকাল ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন ছিলেন ৩৬ জন। তার মধ্যে করোনা আক্রান্ত রোগী ২০ জন। হাসপাতালে করোনা ইউনিট চালুর পর ২০২০ সালের ১৭ মার্চ থেকে এ পর্যন্ত চিকিৎসা নিয়েছেন সাত হাজার ১৬৫ জন। এর মধ্যে করোনা রোগী ছিলেন দুই হাজার ৩২২ জন। চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন পাঁচ হাজার ৭৫৪ জন। এর মধ্যে করোনা পজিটিভ রোগী ছিলেন এক হাজার ৮৮৬ জন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন এক হাজার ৩৭৫ জন। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত ছিলেন ৪২০ জন।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবপ্রধান ও মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এ কে এম আকবর কবীর বলেন, ২০২০ সালের ৮ এপ্রিল মেডিকেল কলেজে আরটি-পিসিআর ল্যাব প্রতিষ্ঠার পর ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের সর্বনিম্ন রেকর্ড ছিল গত ফেব্রুয়ারিতে। ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময় কোনো একটি দিনে শনাক্তের হার শূন্য ছিল। নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ওইদিন একজনও করোনা পজিটিভ রোগী পাওয়া যায়নি। এরপর বিভাগে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ধীরে ধীরে বাড়ছিল। গত এপ্রিল থেকে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে জুন মাস থেকে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকে। গত ৫ জুলাই ৭৩.৯৪ ভাগ করোনা শনাক্ত হয় আরটি-পিসিআর ল্যাবে।

তিনি আরও বলেন, মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ৯০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে একজনের পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। এটি গত সাড়ে ছয় মাসের মধ্যে একদিনে শনাক্তের হারের দিক দিয়ে সর্বনিম্ন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের বরিশালে বিভাগীয় পরিচালক ডা. বাসুদবে কুমার দাস বলেন, গত তিন মাস পর বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় সর্বনিম্ন শনাক্তের হার রেকর্ড হয়েছে। গত কয়েকদিনে করোনা নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, করোনা শনাক্তের হার ধীরে ধীরে কমে আসছে। মৃত্যুর সংখ্যাও কমছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে করোনার উপসর্গ বা সংক্রমিত হয়ে কারো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। এটা আমাদের জন্য অবশ্যই স্বস্তির খবর।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ