১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাউফলে যুবকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য! ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

বাউফল প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর বাউফলে ময়না তদন্ত ছাড়াই নিহত এক যুবকের লাশ দাফন করা হয়েছে। রবিবার সকালে তার লাশ দাফন করা হয়। বিষয়টি নিয়ে এলাকার মানুষদের মধ্যে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। নিহতের নাম সাইদুল (২১)। তিনি দাসপাড়া ইউনিয়নের খেজুরবাড়িয়া গ্রামের আবুল বশার মৃধার ছেলে।
স্হানীয়দের থেকে জানা গেছে, শুক্রবার বিকালে জুলহাস (২৩) হোসেন মোল্লা (২১) ও সাইদুল (২০) তিন বন্ধু মিলে আবু বক্কর নামে এক হোন্ডা চালকের ভাড়া গাড়ী নিয়ে ঘুড়তে বের হয় । বিকাল ৫টার দিকে কালিশুরী থেকে ফেরার পথে বাজারের দক্ষিনপাশের্ব ব্রিজের ঢালে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে যায় মটরসাইকেলটি। আহত অবস্থায় সাইদুলকে বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। অবস্থার অবনতি হলে ওই দিনই তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে শনিবার রাত একটার দিকে সাইদুল মারা যান।

এলাকাবাসী জানায়, গাড়ীর চালক ছিল আমীর হাওলাদারের পুত্র জুলহাস। জুলহাস ও আবদুল আলী হাওলাদারের ছেলে হোসেন মোল্লা সম্পুর্ণ অক্ষত থাকলেও কিভাবে সাইদুল জখম হলো সেটা বুঝতে পারছেন না।
নিহত সাইদুল এর পিতা আবুল বশার মৃধা জানান, আমার ছেলে ঢাকায় নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করত। বাড়ীতে আসার পরে তিন বন্ধু এক সাথে ঘুড়তে বের হলে গেলে ওই ঘটনা ঘটে। রবিবার সকাল ১০টায় পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। ‘ঘটনার পর পরই বাউফল থানার দারোগা মামুন স্যার আইছিলো; আমাদের কোন অভিযোগ নাই।’
দারোগা মামুন জানান, এ ঘটনার কিছুই আমি জানিনা। বাউফল থানার ওসি আল মামুন জানান,তারা নিজেরাই দূর্ঘটনার পড়েছেন এতে অন্য কারো হাত ছিলনা। অভিযোগ না থাকায় ময়না তদন্ত করা হয়নি।

সর্বশেষ