৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কুয়াকাটায় বিজয়ী হয়ে বিপাকে ইউপি চেয়ারম্যান হাফেজ কারী আঃ রহিম

কুয়াকাটা প্রতিনিধি,পটুয়াখালী: কুয়াকাটা ধুলাসার ইউনিয়ন পরিষদ সদ্য নির্বাচন পরবর্তী সংহিসতা, মামলা ও হামলার অভিযোগ এনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ (হাতপাখা) প্রতীকের পটুয়াখালীর ধুলাসার ইউনিয়নের বিজয়ী চেয়ারম্যান হাফেজ কারী মোঃ আঃ রহিম কুয়াকাটা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। শনিবার বেলা ১১ টায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সদ্য বিজয়ী চেয়ারম্যান লিখিত বক্তব্যে বলেন, নির্বাচিত হবার পর থেকে পটুয়াখালী-৪ আসনের এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে পিএস পরিচয়ধারী তরিকুল মৃধার নেতৃত্বে নৌকা প্রতীকের সমর্থক হাবিবুর রহমান,পারেভেজ, মিলন, চৌকিদার কাওসার মৃধাসহ আরোও কয়েকজন সংহিসতা চালিয়ে আসছে। নৌকা প্রতীকের পরাজয়কে মেনে নিতে না পেরে এমন সংহিসতার পথ বেছে নিয়েছে তরিকুল। এসব কারণে তার পরিবার ও কর্মী সমর্থকরা চরম নিরাপত্তাহীনতা রয়েছে বলে দাবী করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে আরও বলেন, নির্বাচনের পরের দিন (১৬ জুন) তরিকুল মৃধা তার বাড়িতে গিয়ে নানা প্রকার ভয়-ভীতিসহ মামলা হামলার হুমকি দিয়েছে। এমনকি ইউনিয়ন পরিষদে যেতে বারনসহ উন্নয়ন কাজে বাঁধা প্রদানের হুমকি দেওয়া হয়েছে।
চেয়ারম্যান হাফেজ কারী মোঃ আঃ রহিম বলেন, নৌকা প্রতীক এবং আওয়ামীলীগের একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের বিরোধকে কেন্দ্র করে হামলা ও সংহিসতা চলছে। আর এসবের দায় হাতপাখার সমর্থক ও পরিবারের ওপর চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে। ওয়ার্ড শ্রমীকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফকে ভিকটিম সাজিয়ে তার ছেলে হাফেজ মোঃ শহিদুল ইসলামসহ ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে মহিপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বর্তমানে হামলা.মামলা ও গ্রেফতার আতংকে রয়েছে কর্মী সমর্থকরা এমন দাবী তার। এ বিষয়ে মহিপুর থানা পুলিশকে অবহিত করা হলেও প্রতিকার না পাচ্ছেন না বলে জানান নবনির্বাচিত ওই চেয়ারম্যান। সাংবাদিক সম্মেলনে এসময় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের পটুয়াখালী জেলা শাখার সভাপতি মুফতি মাওলানা মোঃ হাবিবুর রহমানসহ ধুলাসার ইউনিয়নের নেতাকর্মি ও সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন।
এসব অভিযোগের বিষয় তরিকুল মৃধার কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এমপি ও তার সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য এমন মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে। নির্বাচনের পরের দিন এলাকায় ছিলেন না বলে জানান তিনি।
মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার মোহম্মদ আবুল খায়ের জানান, সহিংসতার বিষয়ে ধুলাসার ইউনিয়নের হাতাপাখা প্রতীকের বিজয়ী চেয়ারম্যানের লিখিত বা মৌখিক অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে সত্যতা যাচাই করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ