৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শ্রদ্ধাবনত চিত্তে বিসিসি মেয়রকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার: বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে বরিশাল জেলা নরসুন্দর কল্যাণ ইউনিয়ন। সম্প্রতি নরসুন্দরের এক সদস্যকে চিকিৎসার জন্য বলার তিন ঘন্টার মধ্যে চিকিৎসার সকল দায়ভার নিয়ে আর্থিক সহায়তা দেওয়ায় এই কৃতজ্ঞতা জানানো হয়। নরসুন্দর কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি রতন চন্দ্র শীল বলেন, আমরা শ্রদ্ধাবনত চিত্তে মাননীয় মেয়র মহোদয়কে কৃতজ্ঞতা জানাই। এভাবে ইতিপূর্বেও তিনি আমাদের সদস্যদের পাশে দাড়িয়েছেন। মাটি ও মানুষের জন্য রাজনীতি করা এই মানুষটি দীর্ঘায়ু ও সাফল্য কামনা করে আশির্বাদ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে তিনি প্রমাণ করেছেন, তিনি বরিশালবাসীকে হৃদয়ে ধারন করেন। আমাদের সুযোগ্য অভিভাবক তিনি। তাছাড়া এই সহায়তা প্রদানের পর থেকে প্রতি সেলুনে সেলুনে আলোচনার ঝড় ওঠে। নরসুন্দর কল্যাণ ইউনিয়নের সাংস্কৃতিক সম্পাদক বিপ্লব চন্দ্র শীল বলেন, আমরা কৃতজ্ঞতার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। সৃষ্টিকর্তা এই মহান মানুষটির সর্বাঙ্গিন কল্যাণ করুন।
জানা গেছে, অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে না পেরে মানবেতর জীবনযাপন করা বরিশাল নগরীর এক নরসুন্দরের পরিবারের আবেদনের তিন ঘন্টার মধ্যেই স্বজনদের কাছে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। গত শনিবার নগরীর সরকারি বরিশাল কলেজ সংলগ্ন রজনীগন্ধ্যা কমিউনিটি সেন্টারে বরিশাল জেলা নরসুন্দর কল্যান সমিতির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও বিশ্বকর্মা পুজার আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ।
ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে নগরীর সাগরদী গাওসিয়া সড়ক নিবাসী ও একই এলাকার জয় হেয়ার ড্রেসার নামক প্রতিষ্ঠানের নরসুন্দর স্বপন চন্দ্র শীলের স্ত্রী রিতা রানী শীল জানান, তার স্বামী গত একবছর যাবত অসুস্থ্যতায় ভুগছেন। অর্থাভাবে চিকিৎসা করাতে না পারায় স্বপন চন্দ্র শীল যেমন আরো অসুস্থ হয়ে পড়ছেন তেমনি কর্মস্থলে যেতে না পারায় সংসারের ভরণপোষন ও চালাতে পারছেন না। তিন লাখ টাকা হলে তার স্বামীকে অপারেশন করে সুস্থ করে তোলা সম্ভব বলে জানান রিতা রানী।
তার এ কথা শুনে সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ স্বপন শীলের অপারেশনের পুরো টাকা দেয়ার কথা বলে অনুষ্ঠান শেষে বাসায় দেখা করতে বলেন। পরবর্তীতে রিতা রানী তার পুত্র জয় শীলকে সাথে নিয়ে গতকালই মেয়রের কালিবাড়ী রোডস্থ সেরনিয়াবাত ভবনে দেখা করেন।
এসময় মেয়র তাঁর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে স্বপন শীলের চিকিৎসার জন্য নগদ তিন লাখ টাকা স্ত্রী রিতা রানী শীলের হাতে তুলে দেন।
আর্থিক সহায়তার অর্থ পেয়ে অশ্রু সংবরণ করতে না পারা রিতা রানী বলেন, তার বিশ্বাস ছিলো মেয়রের সাথে দেখা করে তাদের দূরাবস্থার কথা জানালে মেয়র তাদের ফিরিয়ে দিবেন না। মেয়র তার বিশ্বাসের পুরোটাই বাস্তবায়ন করে চিকিৎসার পুরো টাকাই তার স্বামীর চিকিৎসার জন্য দিয়েছেন। টাকাগুলো হাতে পেয়ে মেয়রের জন্য রিতা রানী দু’হাত তুলে মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করেন বলেন সৃষ্টিকর্তা যেন মেয়রকে র্দীঘজীবী করে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ