২রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বিখ্যাত মনীষীদের দৃষ্টিতে যেমন ছিলেন মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ২৫ বছরেও শান্তি ফেরেনি পাহাড়ে ! বাস্তবায়ন হয়নি পার্বত্য শান্তিচুক্তির অধিকাংশ ধারা বাকেরগঞ্জে ককটেল বিস্ফোরণ ! আটক-৩, সাড়াশি অভিযান চলছে শেবাচিম পরিচালক ও চিকিৎসকের উপর ক্ষুব্ধ হলেন স্বাস্থ্য সচিব চালককে অজ্ঞান করে ইজিবাইক ছিনতাই নবায়ন ও ট্রেড লাইসেন্সবিহীন প্রতিষ্ঠানের খোঁজে মাঠে বিসিসি বরিশালে চুরি হওয়া ১৭টি মোবাইল উদ্ধার করে মালিকদের হস্তান্তর জিপিএ-৫ পেয়েও অর্থের অভাবে কলেজে ভর্তি হওয়া অনিশ্চিত কেয়া’র বিয়ের আসরেই স্ত্রীকে চুমু দেওয়ায় ‘ডিভোর্স’! বন্ধুর স্ত্রীর গোসলের ভিডিও ধারণ, অতঃপর. . . . .. .

বুয়েট শিক্ষার্থী খুন: বরিশাল থেকে সন্দেহভাজন ১ যুবক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক—বুয়েট শিক্ষার্থী ফারদিন নূর পরশের লাশ শীতলক্ষ্যা নদী থেকে উদ্ধারের পর গত ৫ দিনে পাশের বুড়িগঙ্গা নদী থেকে অজ্ঞাতপরিচয় দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে নৌ পুলিশ। অন্যদিকে প্রযুক্তির বিশ্লেষণ করে তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, ৪ নভেম্বরের আগে ১ ও ২ নভেম্বর ফারদিন দুইবার চনপাড়া এলাকায় গিয়েছিলেন। আর ৪ নভেম্বর ফারদিনের সঙ্গে আরেক যুবকও ছিলেন। ফারদিন নিখোঁজ এবং লাশ উদ্ধারের পরও ওই যুবকের হদিস মিলছে না।

ফারদিনের লাশ উদ্ধারের দুই দিন পর নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার সরকারি তেল ডিপো যমুনা অয়েল কম্পানি ঘাটের কাছে বুড়িগঙ্গা নদী থেকে এক যুবকের গলিত লাশ উদ্ধার করে নৌ-পুলিশ। শরীরে আঘাতের চিহ্ন এবং সেলাইয়ের দাগ থাকা মৃতদেহটি পচে যাওয়ায় শনাক্তের নমুনা রেখে এক দিন পর দাফন করা হয়। সবশেষ গতকাল শনিবার ফতুল্লার পাগলা পানগাঁও এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে কচুরিপানার সঙ্গে ভাসমান অবস্থায় আরেক অজ্ঞাতপরিচয় যুবকের লাশ উদ্ধার করে নৌ পুলিশ।

সূত্র জানিয়েছে, ফারদিনের সঙ্গে থাকা যুবকের সন্ধান না মেলা, ৪ নভেম্বর রাতে চনপাড়ায় মারধরের ঘটনা এবং বুড়িগঙ্গায় ভেসে ওঠা দুই যুবকের লাশ ঘিরে অনেক প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। নৌ পুলিশ ছাড়াও তদন্তকারী ইউনিটগুলো এসব প্রশ্নের জবাব খুঁজছে। এদিকে সন্দেহভাজন হিসেবে চনপাড়া এলাকায় অপরাধকর্মে সক্রিয় তিন যুবককে নজরদারিতে রেখেছেন তদন্তকারীরা। রায়হান নামের এক যুবককে বরিশাল থেকে আটক করা হয়েছে। নূর জামাল নামের আরেক যুবককেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে সূত্র জানায়।

আলোচিত বুয়েট শিক্ষার্থী ফারদিন হত্যা মামলার তদন্ত করছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। এ ছাড়া র‌্যাব, নৌ পুলিশসহ বিভিন্ন ইউনিটও ছায়া তদন্ত করছে।

গতকাল ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে তদন্তের অগ্রগতির বিষয়ে ডিবিপ্রধান হারুন অর রশীদ বলেন, ‘প্রকৃত ঘটনা এখনও আমরা বের করতে পারিনি। আর ডিবির পক্ষ থেকে আমরা কখনো বলিনি, বুয়েট শিক্ষার্থী ফারদিন ডেমরার চনপাড়ায় গিয়ে মাদকের কারণে মারা গেছেন। আবার মামলার আসামি ফারদিনের বন্ধুকে আমরা গ্রেপ্তার করেছি, তিনিই খুন করেছেন, সেটিও আমরা বলছি না। আমরা পারিপার্শ্বিকতা, বিভিন্ন বিষয় বিচার-বিশ্লেষণ করছি। আমাদের দল সব বিষয়, তথ্য ও উপাত্ত সংগ্রহ করে বিচার-বিশ্লেষণ করছে। ’

সূত্র- বরিশাল টাইমস

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ